যশোরে চাঁদা আনতে গিয়ে দু’চাঁদাবাজ আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক:যশোর পানি উন্নয়ন বোর্ডের উচ্চ মান সহকারি আবুল বশরের বাড়িতে চাঁদার টাকা আনতে গিয়ে দু’চিহ্নিত চাঁদাবাজকে আটক করেছে পুলিশ। এরা হলো মিশনপাড়া এলাকার খোরশেদ আলমের ছেলে ইসতিয়াক হোসেন রনি এবং একই এলাকার আশরাফুল আলমের ছেলে ইয়াছিন মোহাম্মদ রাবি। এ ঘটনায় ৫ জনকে আসামি করে কোতোয়ালি থানায় মামলা হয়েছে। বাকি ৩ জন হলো মিশন পাড়ার হাবিবুর রহমানের ছেলে ফরিদ, বারান্দীপাড়ার মহাসিন এবং ঝিকরগাছার ইলিয়াছ। কোতোয়ালি থানার এসআই জামাল উদ্দিন জানিয়েছেন, সন্ত্রাসীরা পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মচারি আবুল বশরের সরকারি বাসভবনে গিয়ে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। গত মঙ্গলবার ফরিদ, রনি, রাব্বি, মহাসিন ও ইলিয়াছ তার বাড়ি গিয়ে ছেলের মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে ৫০ হাজার টাকা নেয়। বুধবার দাবিকৃত চাঁদার সাড়ে ৪ লাখ টাকা আনতে যায়। সে সময় পুলিশকে সংবাদ দিলে রনি রাব্বি ও জামিরকে আটক করে। তবে বাদি আবুল বশর জামিরকে সনাক্ত না করায় পুলিশ তাকে ছেড়ে দেয়।