মেহেরপুরে বোমা বিস্ফোরণে ডাকাত নিহত

মেহেরপুর প্রতিনিধি:ডাকাত আলম খান গৃহকর্তাকে লক্ষ্য করে বোমা নিক্ষেপ করতে গেলে তার হাতেই বোমাটি বিস্ফোরিত হয়।

মেহেরপুর শহরের উপকণ্ঠে উজলপুর গ্রামে ডাকাতিকালে আলম খান নামে এক ডাকাত নিহত হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছেন গৃহকর্তা ও তার দুই ছেলে।

নিহত আলম সদর উপজেলার শ্যামপুর গ্রামের কুতুবউদ্দীনের ছেলে।

রোববার রাতে আবদুল জলিলের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

গ্রামবাসী জানায়, রোববার রাত ১২টার দিকে ৮-১০ জনের সশস্ত্র একদল ডাকাত উজলপুর গ্রামের শাহজিপাড়ার আবদুল জলিলের বাড়িতে হানা দেয়। ডাকাতের উপস্থিতি টের পেয়ে গৃহকর্তা আবদুল জলিল এবং তার ছেলে মাসুদ ও নাহিদ চিৎকার শুরু করে এবং ডাকাত দলকে প্রতিরোধের চেষ্টা করে। এ সময় ডাকাত সদস্যরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে তিনজনকেই কুপিয়ে যখম করে। এরপর ডাকাত আলম খান গৃহকর্তাকে লক্ষ্য করে বোমা নিক্ষেপ করতে গেলে তার হাতেই বোমাটি বিস্ফোরিত হয়। এতে সে ঘটনাস্থলেই নিহত হয়।

এদিকে আহত তিনজনকে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় মাসুদকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়।

মেহেরপুরের পুলিশ সুপার একেএম নাহিদুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে জানান, ডাকাতির আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। ডাকাত দলের সদস্যদের গ্রেফতারে পুলিশ কাজ করছে।