যশোর জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এজেডএম ফিরোজের ইন্তেকাল

নিজস্ব প্রতিবেদক:চলে গেলেন ৭১’র রণাঙ্গনের বীর সেনানী যুদ্ধকালীন মহেশপুর থানা মুজিব বাহিনীর কমান্ডার যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি পাবলিক প্রসিকিউটর আবু জাফর মোহাম্মদ (এজেডএম) ফিরোজ। গতকাল ভোর ৫টায় যশোর শহরের পোস্টঅফিস পাড়াস্থ নিজ বাসভবনে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ইন্তেকাল করেন তিনি (ইন্নালিল্লাহে…রাজেউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৪ বছর। যশোরের নন্দিত রাজনৈতিক নেতা প্রয়াত জাতীয় সংসদ সদস্য অ্যাড. রওশন আলীর জ্যেষ্ঠ পুত্র অ্যাড. আবু জাফর মোহাম্মদ ফিরোজের এক মাত্র সন্তান আবু শাহরিয়ার অর্ণব গত ১৩ মার্চ সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত হয়। তিনি স্ত্রী, ৪ বোন, ২ ভাই আত্মীয় স্বজনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। সকালে তার মৃত্যু সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে মুক্তিযোদ্ধাসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক সামাজিক সংগঠনের শীর্ষ নেতৃবৃন্দসহ অসংখ্য নেতাকর্মী ভিড় জমায় তার বাড়িতে। এ সময় স্বজনদের কান্নায় পরিবেশ শোকাবহ হয়ে ওঠে। পুত্র শোকে কাতর নার্গিস পারভীন বানু ৭ মাসের ব্যবধানে স্বামীকে হারিয়ে এখন শোকে পাথর। আবু জাফর মোহাম্মদ ফিরোজের ছোট ভাই অ্যাড. আবু সেলিম রানা জানান, তার বড় ভাই ভোর ৫টার দিকে অসুস্থ হয়ে পড়েন। দ্রুত তাকে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক আনার পথে তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানান। এদিকে, তার মৃত্যুতে আদালতে ফুলকোর্ট রেফারেন্স হয়েছে। পরে বেলা ১২টায় আইনজীবী সমিতির ১ নম্বর ভবনে অনুষ্ঠিত হয় শোক সভা। আইনজীবী সমিতির সহ-সভাপতি রফিকুল ইসলাম পিন্টুর সভাপতিত্বে এ শোক সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রবীণ আইনজীবী কাজী আব্দুস শহীদ লাল, মোহাম্মদ আলী, আবু মোর্তজা ছোট প্রমুখ। বিকেল ৩টায় বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং মোমিন নগর শিল্প ইউনিয়ন এর সভাপতি আবু জাফর মোহাম্মদ ফিরোজের মরদেহ মুজিব সড়কস্থ মোমিননগর সমবায় সমিতি ভবনে নেয়া হয়। এখানে ইউনিয়নের পক্ষ থেকে নেতৃবৃন্দ মরদেহে শ্রদ্ধাঞ্জলি জানান। পরে গাড়িখানাস্থ জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে রাখা হয়। এ সময় জেলা আওয়ামী লেিগর সহ-সভাপতি অ্যাড. পীযুষ কান্তি ভট্টাচার্য, কামরুজ্জামান চুন্নুর নেতৃত্বে শেষ বারের মতো সদ্য প্রয়াত দলীয় নেতা আবু জাফর মোহাম্মদ ফিরোজের মরদেহে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করেন। পরে তার নামাজে জানাযা অনুষ্ঠানের জন্য যশোর কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে আনা হয়। সেখানে বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষে থেকে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ ও রাষ্ট্রীয় সম্মাননা জানানো হয়। এ বীর মুক্তিযোদ্ধার বীর মুক্তিযোদ্ধার রাষ্ট্রয়ি সম্মাননায় নেতৃত্ব দেন জেলা প্রশাসক মোস্তাফিজুর রহমান ও পুলিশ সুপার জয়দেব ভদ্র, যশোর ঈদগাহ জানাযা শেষে সদর উপজেলা নওদাগা গ্রামের বাড়িতে মরদেহ নেয়া হয়। সেখানে স্থানীয় জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে দ্বিতীয় নামাজে জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে সমাহিত করা হয়। যশোরের যারা নামাজে জানাযায় অংম নেন এবং মরহুমের বাড়িতে তার তার আত্মার মাগফেরাত কামনাসহ শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান তাদের মধ্যে উল্লেখ যোগ্যরা হলেন, জাতীয় সংসদ সদস্য খালেদুর রহমান টিটো, অ্যাড. খান টিপু সুলতান, জেলা প্রশাসক মোস্তাফিজুর রহমান, জেলা ও দায়রা জজ ড. গোলাম মোর্তজা, চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শেখ শফিকুর রহমান, জেলা পরিষদের প্রশাসক শাহ হাদিউজ্জামান, সাবেক মন্ত্রী তরিকুল ইসলাম, কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যান এইচএম আজিজ হোসেন, অভয়নগর উপজেলার চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক, পুলিশ সুপার জয়দেব ভদ্র, পৌর মেয়র মারুফুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি পীযুষ কান্তি ভট্টাচার্য, এসএম কামরুজ্জামান, সহিদুল ইসলাম মিলন, জহুর আহম্মেদ, আওয়ামী ীগ নেতা সাইফুজ্জামান পিকুল, আবুর রহমান আব্দার, খয়রাত হোসেন, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. সাবেরুল হক সাবু, অ্যাড. মোহাম্মদ ইসহক, ন্যাপের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক সম্পাদক অ্যাড. এনামুল হক, জাসদের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি রবিউল আলম, ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরো সদস্য ইকবাল কবির জাহিদ, মুক্তিযোদ্ধা রাজেক আহম্মেদ, সিপিবির জেলা সভাপতি আবুল হোসেন, প্রবীণ আইনজীবী কাজী আব্দুল শহিদ লাল, প্রেসক্লাব যশোরের সভাপতি মিজানুর রহমান তোতা, চেম্বার অব কর্মাসের সভাপতি মিজানুর রহমান খান, সংবাদপত্র পরিষদের সভাপতি একরাম-উল-দ্দৌলা, পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি আলী আকবর, জেলা যুবলীগের সভাপতি মোস্তফা ফকির আহমেদ চৌধুরী সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু প্রমুখ।
শেখ আফিল উদ্দিন এমপি’র শোক
যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি পাবলিক প্রসিকিউটর এজেডএম ফিরোজের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন যশোর-১ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের অন্যতম সহ-সভাপতি আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিন। এক বিবৃতিতে তিনি মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।
শোক
অ্যাড. আবু জাফর ফিরোজের মৃত্যুতে গভীর শোক জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। আলাদা বিবৃতিতে তারা মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেছেন। বিবৃতিদাতারা হলেন, যশোর সদর আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য খালেদুর রহমান টিটো, সংরক্ষিত মহিলা আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য রওশন জাহান সাথী, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. আব্দুস সাত্তার, যশোরে শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর আমিরুল আলম খান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলী রেজা রাজু, সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলদার, আইইডির সভাপতি আবুল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম, বঙ্গবন্ধু আইনজীবী পরিষদের সভাপতি কাজী বাহাউদ্দিন ইকবাল, সাধারণ সম্পাদক এম ইদ্রিস আলী, জাতীয় শ্রমিক লীগ জেলা কমিটির সভাপতি কজাজী আব্দুস সবুর হেলাল, সহ-সভাপতি জয়নাল আবেদীন, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মশিয়ার রহমান, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আসাদুজ্জামান মিন্টু, সাধারণ সম্পাদক নূরে আলম মিলন, সমীর কুণ্ডু, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মাহামুদ হাসান বিপু, শফিকুল ইসলাম জুয়েল, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফুল ইসলাম রিয়াদ, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বিপুল, যশোর ইনস্টিটিউটের পক্ষে সাধারণ সম্পাদক শেখ রবিউল আলম, জেলা জাসদের সভাপতি সভাপতি রবিউল আলম, সাধারণ সম্পাদক অশোক রায়, রাইটস যশোরের সভাপতি অ্যাড. শরীক আব্দুর রাকিব, সাধারণ সম্পাদক বিনয় কৃষ্ণ মল্লিক, জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি শরিফুল ইসলাম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক আলতাফ হোসেন রাজিব, বিশেষ পিপি শরীফ নুর মোহাম্মদ আলী রেজা, ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরো সদস্য ইকবাল কবির জাহিদ, কেন্দ্রীয় নেতা জাকির হোসেন হবি, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগ নেতা অধ্যাপক আফসার আলী তসলিমুর রহমান, ঝিকরগাছা উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাড. মনিরুল ইসলাম, বিপ্লবী ছাত্রমৈত্রী জেলা কমিটির নেতা পলাশ বিশ্বাস, নান্নু চৌধুরী ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের সদস্য সচিব শহীদ আনোয়ার, জেএসডি জেলা কমিটির সভাপতি আব্দুস সালাম, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ বিপ্লব আজাদ, স্পন্দন যশোরের পক্ষে সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম, জেলা সিপিবির সভাপতি অ্যাাড. আবুল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক গাজী গোলাম মোস্তফা, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহিত কুমার নাথ, সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান মিন্টু, যশোর শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাড. আবুল হোসেন ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ইয়ামিন সিদ্দিকী ও নাট্য সংগঠন বিবর্তনের নির্বাহী ও সাধারণ সদস্যবৃন্দ।