হঠাৎ ঘূর্ণিঝড়ে ডুমুরিয়ায় লণ্ডভণ্ড

সুব্রত কুমার ফৌজদার, ডুমুরিয়া:ডুমুরিয়ায় রোববার রাতে হঠাৎ ঘূর্ণি ঝড়ে পূর্ব বিলপাবলা এলাকায় ব্যাপক তাণ্ডব চালায়। ঝড়ে স্থানীয় দুর্গা পূজা মন্দিরসহ এলাকার মানুষের বসত ঘর, রান্না ঘর, গোয়াল ঘর ভেঙে ৩ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়।
সরেজমিনে ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে আকাশ মেঘাচ্ছন্ন হয়ে ঝড়ো বৃষ্টি ও বজ্রপাত শুরু হয়। ঠিক পৌনে ৮টার দিকে ১ মিনিটের হঠাৎ প্রলয়ংকারী ঝড়ে ব্যাপক তাণ্ডব ঘটায়। এ সময়ে উপজেলার পূর্ব বিলপাবলা সার্Ÿজনীন পূজা মন্দিরের টিনের ছাউনির নাট ও মন্দিরটি উড়ে যায় এবং উত্তম মন্ডলের বসত ঘরের উপর গাছ পড়ে ঘরটি সম্পূর্ণ বিধ্বস্ত হয়। এছাড়া একটি হরি মন্দির, দেব সরকার, রঞ্জন বিশ্বাস, মিহির রায় ও শ্যামল বাছাড়ের বসত ঘর, দিলীপ মহলদার, সুভাষ, অজয় মন্ডল ও কার্তিক বিশ্বাসের গোয়ালঘর, পঞ্চরাম বিশ্বাসের ধানের গোলা, তিতাস বিশ্বাসের পাক ঘর ভেঙে যায়। তাছাড়াও এলাকার অর্ধ শতাধিক মানুষের বিভিন্ন ক্ষয় ক্ষতি হয়।
খবর পেয়ে সোমবার সকালে স্থানীয় চেয়ারম্যান মোস্তফা সরোয়ার, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শেখ আ. কাদেরসহ ইউপি সদস্য দুলাল চন্দ্র বালা ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা পরিদর্শন করেন।
আওয়ামী লীগে যোগ দিলেন
ডুমুরিয়া বিএনপির ৩২ কর্মী
ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি
ডুমুরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে সোমবার সকালে শহীদ জোবায়েদ আলী মিলনায়তনে উপজেলার সকল নেতাকর্মীর সমন্বয়ে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। মতবিনিময় সভায় উপজেলা ও ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগ, শ্রমিকলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভা শেষে উপজেলার সাহস ইউনিয়নের ৩২জন বিএনপি’র কর্মী সংসদ সদস্যের হাতে ফুলের তোড়া দিয়ে আওয়ামী লীগে যোগদান করেন।
উপজেলা আ.লীগের সভাপতি ও সংসদ সদস্য নারায়ন চন্দ্র চন্দের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন, খুলনা জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক হুইফ এসএম মোস্তফা রশিদি সুজা। বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, জেলা আ.লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক মোকলেসুর রহমান বাবলু, উপজেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি শাহনেওয়াজ হোসেন জোয়াদ্দার ও মোস্তফা কামাল খোকন, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আক্তারুজ্জামান বাবু ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আবু হানিফ।
উপজেলা আ.লীগের যুগ্ম সম্পাদক সরদার আবু সালেহ’র উপস্থাপনায় বক্তব্য দেন, বিমল কৃষ্ণ বসাক, তাপস কুমার হালদার, কাজী এমদাদুল হক, শেখ আব্দুল কুদ্দুস, চেয়ারম্যান মোস্তফা সরোয়ার, মহিলা নেত্রী ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শোভা রানী হালদার, গাজী হুমায়ুন কবির বুলু, মহিলা নেত্রী জাহানারা বেগম, প্রভাষক জিএম ফারুক হোসেন, গাজী রকিবুল ইসলাম, আশরাফুল আলম রাজু, মোল্যা সোহেল রানা, গাজী আব্দুস ছালাম, মেহেদী হাসান রাজা, সরদার কবির হোসেন প্রমুখ। অনুষ্ঠানে পবীত্র কুরআন তেলোয়াত পাঠ করেন মাওঃ আব্দুল্লাহ ও গীতা পাঠ করেন প্রভাষক গোবিন্দ ঘোষ।
সভা শেষে উপজেলার সাহস ইউনিয়নের ৩২জন বিএনপি’র কর্মী সংসদ সদস্যের হাতে ফুলের তোড়া দিয়ে আওয়ামী লীগে যোগদান করেন। এরা হলেন, আহাদ আলী খান, লিয়াকত আলী খান, আবজাল হোসেন খান, ইব্রাহীম খান, ইলিয়াজ খান, নওহর আলী খান, তাওহিদুল ইসলাম খান, সোহেল খান, খায়রুল গোলদার, সুরুজ্জামান গাজী, আমীর আলী শেখ, মাহাবুর রহমান শেখ, আবজাল সরদার, নুরু ইসলাম সরদার, আলী আকবর গাজী, আঃ জলিল খান, কাদের খান, ইশারাত খান, ফেরদাউস খান, জিহাদ আলী খান, আক্তার আলী খান, মনিরুল শেখ, কামরুল খান, সোহরাব খান, আইনুল ফকির, জাফর ফকির, মুনছুর ফকির, শুকুর ফকির, মাহামুদ গাজী, ছালাম শেখ, আ. ছালাম গোলদার ও আসফাক ফকির।