পোপের দেশে ক্রিকেট

ক্রীড়া প্রতিবেদক:ক্যাথলিক ধর্মালম্বীদের তীর্থস্থান ভ্যাটিকান সিটিতে ক্রিকেট খেলা চালু হতে যাচ্ছে। সম্প্রতি পোপ প্রধান বিশ্বের সবচেয়ে ছোট এই দেশটিতে প্রথম বারের মতো ক্রিকেট ক্লাবের যাত্রা শুরু হয়েছে। এখন কেবল দল গঠনের অপেক্ষা।
বিভিন্ন ধর্মালম্বীদের মধ্যে বিশ্বাস ও সমঝোতা বাড়াতেই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।
‘অক্রিকেটীয়’ দেশে ক্রিকেট চালু করার ব্যাপারে অগ্রণী ভূমিকা রাখেন দেশটিতে নিযুক্ত অস্ট্রেলিয়ার রাষ্ট্রদূত জন ম্যাকার্থি। তিনি উদ্যোগটিকে ‘ক্রিকেট কূটনীতি’ বলে উল্লেখ করে এর মাধ্যমে হিন্দু, মুসলিম ও শিখরা একত্রে খেলার সুযোগ পাবে বলে মনে করেন।
ম্যাকার্থি বলেন, রোমে ২৫০-৩৫০ সম্ভাব্য খেলোয়াড় বিভিন্ন সেমিনার এবং ধর্মীয় বিশ্বাবিদ্যালয়ে পড়াশোনা করে। এদের অনেকেই ক্রিকেট প্রধান দেশ থেকে আগত। সুতরাং দল গঠনে কোন সমস্যা হবে না।
ইতোমধ্যেই ‘ভ্যাটিকান-১১’ নামে ক্রিকেট বোর্ড গঠন করতে হয়েছে। এছাড়া সীমিত ওভারের টুর্নামেন্টও আয়োজন করা হয়েছে। এখানে ছাত্রছাত্রী ও যাজকরা খেলার সুযোগ পাবেন।
টিমের লোগো হবে সাদা- হলুদ রংয়ের মিশেল ছোট্ট ভ্যাটিকান সিটির লোগো। খেলোয়াড়দের জ্যাকেটে ডিজাইন হবে পেপাসি সিলের দুটি আড়াআড়ি চাবি চিহ্নিত ছবি।
ক্রিকেট ক্লাবের চেয়ারম্যান নির্বাচন করা হয়েছে ভারতীয় যাজক ফাদার থিয়োদার ম্যাসকারেনহাস। অফ স্প্রিংনার বলে পরিচিত ম্যাসকারেনহাস বিশ্বের যেকোন দলকে হারানোর ব্যাপারে আশাবাদী।
তিনি বলেন, ফুটবল প্রিয় পোপ ফ্রান্সিস নতুন খেলা ক্রিকেটকেও গ্রহণ করবেন।