সমাবেশ শেষে বোমা নিক্ষেপ: গাড়িতে আগুন

স্পন্দন ডেস্ক:সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ১৮ দলীয় জোটের জনসভা শেষে ফিরে যাওয়ার সময় মিছিল থেকে পুলিশের গাড়ি লক্ষ্য করে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপের ঘটনা ঘটেছে।
প্রায় একই সময় হাতবোমা বিস্ফোরণ ও গাড়িতে আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটেছে রাজধানীর শাহবাগ, কারওয়ান বাজার, কাটাবন, সেগুনবাগিচায়।
শুক্রবার বিকাল সোয়া ৫টার দিকে রাজধানীর হাইকোর্ট এলাকায় কদম ফোয়ারার সামনে মিছিল থেকে পুলিশের গাড়ি লক্ষ্য করে হাতবোমা নিক্ষেপ করা হয় বলে পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান।
শাহবাগ থানার উপপরিদর্শক ফারুক হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, “বিএনপি চেয়ারপারসনের বক্তৃতা শেষ হওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই একটি মিছিল আসতে দেখি। ওই মিছিল থেকে জামায়াত-শিবিরের পক্ষে স্লোগান দেয়া হচ্ছিল। আমরা কিছু বুঝে ওঠার আগেই গাড়ি নিক্ষেপ করে তিনটি পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করা হয়।”
এছাড়া মৎস্য ভবনের সামনে এবং কাটাবনেও পেট্রোল বোমা নিক্ষেপের ঘটনা ঘটেছে।
ডিসি (ট্রাফিক-নর্থ) রুহুল আমিন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানিয়েছেন, একটি মিছিল থেকে মৎস্য ভবনের সামনে পুলিশের গাড়ি লক্ষ্য করে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করা হয়েছে। তবে এতে কেউ আহত হয়নি।
শাহবাগ মোড়েও হাতবোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, ওভার ব্রিজের উপর থেকে কয়েকজন যুবক ফাঁকাস্থানে দুটি হাতবোমা নিক্ষেপ করে পালিয়ে যায়।
এদিকে সেগুনবাগিচায় প্রাইভেটকারে এবং কারওয়ান বাজারে ওয়াসা ভবনের সামনে যাত্রীবাসে আগুন দেয়ার খবর পাওয়া গেছে।
পুলিশের উপ-কমিশনার মাসুদুর রহমান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, সেগুনবাগিচা কাঁচাবাজারের কাছে দাঁড়িয়ে থাকা একটি প্রাইভেটকারে কে, বা কারা আগুন ধরিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায়।
তেজগাঁও থানার ওসি অপূর্ব হাসান জানান, ওয়াসা ভবনের সামনে একটি যাত্রীবাহী বাস থামলে কয়েকজন যুবক সেটিতে আগুন ধরিয়ে দেয়। তবে যাত্রী ও আশেপাশের মানুষের সহায়তায় তাৎক্ষণিকভাবে তা নিভিয়ে ফেলা হয়।
এর আগে ওই সমাবেশে সরকারকে দুই দিনের মধ্যে সংলাপের উদ্যোগ নেয়ার জন্য সময় বেঁধে দিয়ে কর্মসূচি ঘোষণা করেন খালেদা জিয়া। তিনি বলেছেন, নির্ধারিত সময়ের সময়ের মধ্যে সংলাপ শুরু না হলে রোববার থেকে সারা দেশে তিন দিনের টানা হরতাল হবে।
আ. লীগের নির্বাচন পরিচালনা
কমিটি বসছে আজ
দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে আজ শনিবার প্রথমবারের মতো বৈঠকে বসছে আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটি।
শুক্রবার দলের উপ-দপ্তর সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় গণভবনে এই বৈঠক হবে।
আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সভাপতি শেখ হাসিনা এতে সভাপতিত্ব করবেন।
নির্বাচন পরিচালনা কমিটিতে দলের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ, উপদেষ্টা পরিষদ ও সংসদীয় বোর্ডের সদস্যরা রয়েছেন।
সভায় সংশ্লিষ্ট সবাইকে যথাসময়ে উপস্থিত থাকার জন্য আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম অনুরোধ জানিয়েছেন।