খালেদার ‘লাল টেলিফোন’ সচল হল

স্পন্দন ডেস্ক:বিরোধীদলীয় নেতা খালেদা জিয়ার বাড়ির লাল টেলিফোনটি সচল হয়েছে বলে জানিয়েছে বিটিসিএল। শনিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কল করার পর প্রকাশ পায় যে বিরোধীদলীয় নেতার বিশেষ টেলিফোনটি বিকল হয়ে আছে।লাইনে সমস্যা বাড়ির ভেতরে ছিল জানিয়ে বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন্স কোম্পানি লিমিটেড (বিটিসিএল) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, সোমবার দুপুর ২টা থেকে টেলিফোনটি সচল।শনিবার বিকালে বিষয়টি জানার পরই এক্সচেঞ্জের লাইন এবং বিএনপি চেয়ারপারসনের বাসার সামনের টেলিফোন কেবিনেট পরীক্ষা করে বিটিসিএল।সেখানে কোনো সমস্যা না পাওয়ায় বাসা পর্যন্ত লাইন পরীক্ষা করা হয়, তবে অনুমতি না পাওয়ায় বাসভবনের ভেতরে গিয়ে ফোন সেট বা লাইন চেক করা হয়নি বলে জানায় বিটিসিএল।“গত রোববারও বাসায় প্রবেশের অনুমতি পাওয়া না যাওয়ায় তা ঠিক করা হয়নি। আজ সোমবার অনুমতি পাওয়ার পর তা সচল করা হয়।”বিটিসিএলের ঊধ্বতন এক কর্মকর্তা  বলেন, “বাসার ভেতরে টেলিফোন লাইনে সমস্যা ছিল, বাসার বাইরের কেবিনেট পর্যন্ত কোনো সমস্যা ছিল না।”২৬ অক্টোবর বিকাল পযন্ত বিরোধীদলীয় নেতার বাসভবনের লাল টেলিফোনটির বিষয়ে কোনো অভিযোগ বিটিসিএল পায়নি বলেও সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।
গত শনিবার শেখ হাসিনা টেলিফোন করে খালেদা জিয়াকে পাননি। এরপর সন্ধ্যা সোয়া ৬টার পর বিএনপি চেয়ারপারসনকে মোবাইল ফোনে কল করে প্রায় ৩৭ মিনিট কথা বলেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী।
খালেদা জিয়াকে ফোন করে শেখ হাসিনা বলেন, “আমি আপনাকে ফোন দিয়েছিলাম। আমি রেড টেলিফোন থেকে নিজের হাতে ফোন করেছি। বারবার রিং হয়েছে। আমি দুঃখিত যে আপনি ধরতে পারেননি।
“ফোন ডেড, না কি ডেড করে রাখা হয়েছে, বলতে পারছি না। আগামীকাল আমি দেখব।”
শেখ হাসিনা টেলিফোন করেও না পাওয়ার কথা জানালে টেলিফোনটি দীর্ঘদিন ধরে বিকল হয়ে আছে বলে জানান বিএনপির চেয়ারপারসনের বিশেষ সহকারী শামসুল রহমান শিমুল বিশ্বাস।