ইরানে সংস্কারবাদী পত্রিকা ‘বাহার’ নিষিদ্ধ

ইরানের গণমাধ্যম পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা দেশটির একটি সংস্কারবাদী পত্রিকার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। শিয়া মুসলিমদের ধর্মবিশ্বাস সম্পর্কে প্রশ্ন তোলার অভিযোগে পত্রিকাটির ওপর এই খড়গ নেমে আসে।
দেশটির সংবাদ মাধ্যমের বরাত দিয়ে দ্য ডন এ খবর জানিয়েছে।
“ইরানের সংবাদমাধ্যম পর্যবেক্ষণ বোর্ডের জারি করা নিষেধাজ্ঞায় বাহার সংবাদপত্রকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে এবং সংবাদপত্রটির বিরুদ্ধে দায়ের করা অভিযোগ বিচার বিভাগে পাঠানো হয়েছে,” বলে বোর্ডের প্রধান আলাদিন জোহোউরিয়ানের উদ্ধৃতি দিয়ে মেহার সংবাদ সংস্থা জানিয়েছে।
‘বাহার’ সংবাদপত্রের পক্ষ থেকে ক্ষমা চেয়ে এক বিবৃতিতে জানানো হয়, গত সপ্তায় প্রকাশিত নিবন্ধটি ছিল ‘অসচেতন ভুল’। এবং উত্তেজনা প্রশমনের জন্য সাময়িকভাবে সংবাদপত্রটি শনিবার তাদের কার্যক্রম স্থগিত রেখেছে।
বিবৃতিতে আরো বলা হয়, “যে নিবন্ধটি দুঃখজনকভাবে ধর্মবিশ্বাসীদের আনুভূতিতে আঘাত হেনেছ সেটি একটি কারিগরি ক্রুটি। উপসম্পাদকীয়তে বেশ কয়েকবার ক্ষমা চাওয়া হয়েছে, দুঃখ প্রকাশ করা হয়েছে এবং জানানো হয়েছে, বাহারের রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গীর সঙ্গে যা সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়।”
ইরানের নতুন নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি। সংস্কারবাদী এবং উদার বলে পরিচিত রুহানি নির্বাচনী প্রচারণায় অধিকমাত্রায় সামাজিক স্বাধীনতার জন্য কাজ করবেন বলে অঙ্গীকার করেছিলেন।
চলতি বছরের অগাস্টে রুহানি দায়িত্ব গ্রহণ করার পর বেশ কয়েকজন সংস্কারবাদী সাংবাদিক এবং রাজনৈতিককর্মী মুক্তি পেয়েছেন।