দু’এক দিনের ভেতরেই নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার ধারণা

স্পন্দন ডেস্ক:আগামী দু’এক দিনের ভেতরে আচরণবিধি চূড়ান্ত করে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা বিষয়ে ধারণা দেবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।
এছাড়াও গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশে (আরপিও) দেওয়া নির্বাচনকালীন সময়ে প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের বদলির ক্ষমতা ব্যবহারেরও প্রস্তুতি নিচ্ছে ইসি।
মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে পাঁচটায় ইসি কার্যালয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকিব উদ্দীন আহমেদ সাংবাদিকদের এ কথা জানান।
সিইসি বলেন, নির্বাচনকালীন সময়ে কর্মকর্তাদের বদলির ক্ষমতাটি পুরোপুরি ব্যবহার করবে ইসি। আমরা এরই মধ্যে এর প্রস্তুতি নেওয়া শুরু করেছি। বিভিন্ন জায়গা থেকে আসা অভিযোগের ভিত্তিতে আমরা বিতর্কিত কর্মকর্তাদের ব্যাপারে খোঁজ নেওয়ার কাজ শুরু করেছি। আমরা সবাইকে ঢালাওভাবে অভিযোগ না দিয়ে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ দিতে বলেছি।
আরপিওতে নির্বাচনী প্রার্থী হওয়ার ক্ষেত্রে নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের তিন বছরের সদস্য থাকার বাধ্যবাধকতা তুলে নেওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, এটা সংসদের বাপার। এ বিষয়ে আমাদের কোনো মতামত নেওয়া হয়নি।  এ ব্যাপারে আমরা কোনো মতামতও দেইনি।
আগামী সংসদ নির্বাচনের সম্ভাব্য তফসিল সম্পর্কে সিইসি বলেন, সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী আচরণ বিধিমালা ও নির্বাচন পরিচালনা বিধিমালা সংশোধন বিষয়ে আগামীকাল (বুধবার)  কমিশনে বৈঠক ডাকা হয়েছে। এ বিষয়গুলো চূড়ান্ত হলে সম্ভাব্য নির্বাচনী তারিখ সম্পর্কে ধারণা পাওয়া যাবে। তবে আমরা সাধারণত নির্বাচনের ৪৫ দিন আগে নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করি।
মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটিতে (একনেক) ৪ হাজার ২৫৩ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন সম্পর্কে তিনি বলেন, উন্নয়ন কাজ তো থেমে থাকবে না। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময়েও এটা হয়ে থাকে। তবে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর আমরা এ বিষয়ে বাধ্যবাধকতা দেবো। সে সময় দৈবিক দুর্যোগ ছাড়া কোনো প্রকল্পর অনুমোদন দেওয়া হবে না।