বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠাতার নাম পরিবর্তনের অভিযোগ

বটিয়াঘাটা প্রতিনিধি:উপজেলা সুখদাড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতার নাম পরিবর্তনের জন্য গত ২৮ অক্টোবর বোর্ড চেয়ারম্যানসহ শিক্ষা দপ্তরে অভিযোগ করেছেন বিদ্যালয়ের সভাপতি গুনধর রায়।
অভিযোগে জানা যায়, ১৯৯৯ সালে বিধ্যালয়ের ৫ সদস্য বিশিষ্ট অন্তরবর্তী কালীন কমিটি গঠন করা হয়। ওই কমিটিতে জনৈক আবু বক্কর শেখকে অভিবাবক সদস্য দেখানো হয়। তখন বিদ্যালয় কার্যকরী পরিষদে প্রতিষ্ঠাতা পদটি ছিল না। নিজের স্বার্থ চরিতার্থ করতে বক্কর শেখ কৌশলে ওই সময়ে প্রতিষ্ঠাতা পদ সৃষ্টি করে অদ্যবধি প্রতিষ্ঠাতা পদটি আকড়ে ধরে বিদ্যালয়ের কার্যকরী পরিষদে বহাল আছেন। অথচ এই যাবত কোন শর্ত পূরন না করায় বিদ্যালয়ের সভাপতি প্রতিষ্ঠানের ভবিষ্যত ভেবে পদটি বাতিলের জন্য উপ পরিচালকসহ শিক্ষক দপ্তরের বিভিন্ন কর্মকর্তার নিকট জোর দাবি করেছেন।

খুলনায় ১৪দলের সমাবেশে নেতৃবৃন্দ
হরতালে যত মানুষ খুন হয়েছে তার
দায়িত্ব খালেদাকেই বহন করতে হবে
খুলনা ব্যুরো
খুলনায় ১৪ দল নেতৃবৃন্দ বলেছেন, গত তিনদিনে হরতাল চলাকালে যে সকল মানুষ খুন হয়েছে তার দায়-দায়িত্ব খালেদা জিয়াকে বহন করতে হবে। বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া গণতন্ত্রের কথা বলে দেশবাসীর সামনে মায়া কান্না কাঁদছে। অথচ তিনি নিজে স্বৈরাচারী আচরণ পরিহার করতে পারেননি। আগে নিজের দলের মধ্যে গণতন্ত্র আনতে হবে। পরে দেশবাসীর সামনে গণতন্ত্রের পরীক্ষা দিন।
নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, এখনও সময় আছে আলোচনায় এসে নির্বাচনে অংশ গ্রহন করুন। অন্যথায় সর্বদলীয় সরকার গঠন করে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।
প্রধানমন্ত্রীর প্রস্তাবের বাস্তবায়নের দাবিতে এবং দেশব্যাপী হরতালের নামে হত্যা, ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের প্রতিবাদে গতকাল দুপুরে দলীয় কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত সমাবেশে নেতৃবৃন্দ এসব কথা বলেন।
মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সাবেক মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেকের সভাপতিত্বে এবং মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও ১৪দলের সমন্বয়ক আলহাজ্ব মিজানুর রহমান মিজানের পরিচালনায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও জেলা পরিষদ প্রশাসক শেখ হারুনুর রশীদ।
অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন, এসএম মোস্তফা রশিদী সুজা, অধ্যাপক ফকির আবু হোসেন, এমডিএ বাবুল রানা, ন্যাপের তপন কুমার রায়, সাম্যবাদি দলের এফ এম ইকবার, ওর্য়াকার্স পার্টি দেলোয়ার উদ্দিন দিলু, মফিদুল ইসলাম, মাহবুব আলম সোহাগ, শেখ আবিদ হোসেন, জাহাঙ্গীর হোসেন, সাবেক প্যানেল মেয়র আজমল আহমেদ তপন, আবুল কালাম আজাদ কামাল, শেখ পীর আলী, শেখ সোহরাব হোসেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জয়ন্তী রাণী, কামরুজ্জামান জামাল, আকতারুজ্জামান বাবু, সাবেক কাউন্সিলর জেডএ মাহমুদ ডন প্রমুখ।
আগামী ১ নভেম্বর বিকাল ৩ টায় সমাবেশ ও মিছিল আহবান করা হয়।