ডুমুরিয়ায় ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে বন্ধ

ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি : 
অবশেষে ডুমুরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসারের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে বন্ধ করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটে রোববার দুপুরে উপজেলার সাহস নোয়াকাটি এলাকায়। এ সময়ে কন্যার এক আত্মীয়ের কাছ থেকে বিয়ের প্রাপ্ত বয়সের একটি নোটারি পাবলিক কর্তৃক এভিডেভিট দলিল উদ্ধার করা হয়েছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কুখিয়া গ্রামের রবিউল শেখের ছেলে ওহিদুল শেখ (২২) ও সাহস নোয়াকাটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী সোনিয়া খাতুন ১৭ ফেব্র“য়ারি খুলনার নোটারি পাবলিক থেকে প্রাপ্ত বয়স বানিয়ে একটি এভিডেভিট করে। ওই এফিডেভিটে সোনিয়া খাতুনের বয়স দেয়া হয়েছে ১৮ বছর। প্রকৃতপক্ষে তার বয়স ১৩ বছর। অ্যাড. শামীম হাসান, জজ কোর্ট, খুলনা স্বাক্ষরিত ওই এফিডেভিট দলিলে উল্লেখ করা হয়েছে, ২৫ ফেব্র“য়ারি তারিখের মধ্যে স্থানীয় ম্যারেজ রেজি. দ্বারা কাবিননামা করতে, নইলে অত্র দলিল বাতিল বল্যে গণ্য হবে। রোববার আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়ের আয়োজনের খবর শুনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ সামছু দ্দৌজা, সহকারী কমিশনার (ভূমি) সেলিম রেজা ও উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা সুরাইয়া সিদ্দিকাসহ পুলিশ ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল সাহস এলাকায় যান। সেখানে প্রায় ২ ঘন্টাব্যাপি বর, কনে, অভিভাবকসহ সংশ্লিষ্ট অপরাধিদের ধরার তৎপরতায় থাকলেও কাউকে আটক করতে স্বক্ষম হয়নি। এমনকি কাজীকেও পাওয়া যায়নি। পরে ওই দলিলটি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ওহিদুলের নামে ডুমুরিয়া থানায় মামলা করা হবে বলে মহিলা কর্মকর্তা জানিয়েছেন।
ডুমুরিয়ায় অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচনের লক্ষ্যে
বিভাগীয় কমিশনারের মতবিনিময়
ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি
অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে ডুমুরিয়া উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে রোববার বিকেলে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী, জনপ্রতিনিধি, সরকারি কর্মকর্তাসহ স্থানীয় সুধিমন্ডলী ও সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।
উপজেলা শহীদ জোবায়েদ আলী মিলনায়তনে খুলনা জেলা প্রশাসক আনিস মাহমুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি’র বক্তব্যদেন খুলনা বিভাগীয় কমিশনার মোঃ আব্দুল জলিল। আরো বক্তব্যদেন পুলিশ সুপার গোলাম রউফ খান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক ইলিয়াস হোসেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ সামছু দ্দৌজা, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ সেলিম রেজা, থানা অফিসার ইনচার্জ শাহ মোঃ আওলাদ হোসেন ও আড়ংঘাটা থানার ওসি আবু মুসা খন্দকার। আরো বক্তব্যদেন উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা মেহেদী আল মাসুদ, চেয়ারম্যান জিএম আমান উল্লাহ, চেয়ারম্যান মোল্যা মোশাররফ হোসেন মফিজ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী মাওঃ সিরাজুল ইসলাম, অধ্যা. সত্যরঞ্জন বারুরী প্রমুখ।

ডুমুরিয়ায় যাত্রীবাহী বাস
খাদে পড়ে আহত ৩৫

ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি
খুলনা-সাতক্ষীরা মহাসড়কের ডুমুরিয়ার মেছাঘোনা নামকস্থানে গতকাল রবিবার সন্ধ্যায় বাস দুর্ঘটনায় নারী-শিশুসহ অন্তত ৩৫ জন যাত্রী আহত হয়েছেন। আহতদের উদ্ধার করে ডুমুরিয়া হাসপাতালসহ খুমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সুত্রে জানা যায়, খুলনা থেকে একটি যাত্রীবাহি বাস (যার নম্বর ঢাকা মেট্রো জ ১১-০০৬২) সাতক্ষীরায় যাওয়ার পথে উপজেলার মেছাঘোনা নামকস্থানে নিয়ন্ত্রন হারিয়ে রাস্তার খাদে পড়ে যায়। এসময়ে বাসে থাকা যাত্রীদের মধ্যে আঙ্গারদহের মজিদ (১৩), আঃ গণি(৫৫), শোভনার নাসিমা (২০) পবিত্র দাস(৩২), শহিদুল (২৫), মফিজুর (৩০), সাজিয়াড়ার জাহাঙ্গীর (৩২), রুদাঘরার মহিউদ্দিন (৩৮), সিংগার মেঘনাথ(৫০), রেখা বৈরাগী (৪০), ডুমুরিয়ার শান্ত রায় (১৫), ভদ্রদিয়ার শ্যামপদ (৪০), রানাইয়ের রহিমা (৫৫), চকনগরের আঃ রহমান (৪০), বরিশাল জেলার কওসার (৫০), নড়াইল জেলার রাজিব (২৫), কালিগঞ্জ থানার আমিরুল (৩০), পাটকেলঘাটার নুরল (৫০), মুন্সি (১৬), ফিরোজা (৪০)সহ ৩০/৩৫জন যাত্রী আহত হয়। ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয়দের সহযোগিতায় আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে ডুমুরিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আহতদের মধ্যে ১০ জনের অবস্থা আশংকাজনক হলে তাদের খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।