তালায় বিএনপি-জামায়াতের প্রার্থী চূড়ান্ত : পারেনি আ.লীগ

তপন চক্রবর্ত্তী, তালা :
তফসিল ঘোষণার পর সাতক্ষীরার তালা উপজেলা নির্বাচনের মাঠ সরগরম হয়ে উঠেছে। ইতিমধ্যে বিএনপি-জামায়াত আলাদাভাবে প্রার্থী চূড়ান্ত করলেও আওয়ামী লীগ এখনও তা করতে পারেনি। আওয়ামী লীগের চার প্রভাবশালী নেতা নির্বাচনী মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। পিছিয়ে নেই ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীরাও। সকলে এখন দলীয় মনোনয়ন পেতে দৌঁড়ঝাপ শুরু করেছেন।
তবে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চূড়ান্ত করতে আগামী ২৭ ফ্রেব্র“য়ারি বর্ধিত সভা ডেকেছে দলটি।
আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে মাঠে রয়েছেন চেয়ারম্যান পদে তালা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ঘোষ সনৎ কুমার, জেলা কৃষকলীগের সভাপতি বিশ্বজিৎ সাধু, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ফিরোজ কামাল শুভ্র, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি এমএম ফজলুল হক, ভাইস-চেয়ারম্যান পদে উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মীর জাকির হোসেন, জেলা কৃষকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইখতিয়ার হোসেন, সাবেক ছাত্রনেতা আতাউর রহমান, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী জেবুন্নেছা বেগম ও মোস্তারী সুলতানা পুতুল।
এদিকে বিএনপি থেকে চেয়ারম্যান পদে অধ্যাপক কামরুল ইসলাম এবং জামায়াত থেকে ডা. মাহমুদুল হককে চূড়ান্ত করেছে দল দু’টি। এছাড়া অধ্যাপক গাজী সুজায়েত আলী ও আফরোজা বেগমকে ভাইস চেয়ারম্যান পদে চূড়ান্ত করেছে জামায়াত।
তালা উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক উপাধ্যক্ষ শফিকুল ইসলাম জানান, নির্বাচনের তফশিস ঘোষণার পরই  বিএনপি থেকে চেয়ারম্যান পদে অধ্যাপক কামরুল ইসলাম ও ভাইস-চেয়ারম্যান শেখ জিল্লুর রহমানকে মনোনীত করা হয়েছে। এই নির্বাচনে তারা জয়ী হবেন বলেও আশা করেন তিনি।
আওয়ামী লীগ নেতা ও খলিলনগর ইউপি চেয়ারম্যান প্রণব ঘোষ বাবলু জানান, আওয়ামী লীগ প্রার্থীকে বিজয়ী করতে হলে সকল কোন্দল ভেদা-ভেদ ভুলে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আন্তরিকতার সাথে নির্বাচনী প্রচারণায় নামতে হবে। এছাড়া ১৪ দলসহ মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের সকল শক্তি ও ব্যক্তিকে ঐক্যবদ্ধ করতে হবে। তা না হলে নির্বাচনের ফল বিপর্যয়ের আশংক্কা রয়েছে।
তালা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ নূরুল ইসলাম জানান, দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে কোন প্রার্থী হবে না। প্রয়োজনে কাউন্সিলের মাধ্যমে প্রার্থী দেয়া হবে। এজন্য ২৭ ফ্রেব্র“য়ারি দলের বর্ধিত সভা ডাকা হয়েছে। এই সভায় চূড়ান্ত করা হবে প্রার্থী।