বেনাপোলে মেয়র বাহিনীর হামলায় চেয়ারম্যানসহ ৪ আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী আহত : গুলি

ইয়ানুর রহমান  :বেনাপোলে পৌর মেয়র আশরাফুল আলম লিটন বাহিনীর সদস্যরা গুলি করে ও কুপিয়ে চেয়ারম্যানসহ ৪ আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীকে হত্যার চেষ্টা করেছে। আহতরা হলেন লক্ষনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল হোসেন, যুবলীগ নেতা আশা, আওয়ামী লীগ কর্মী নজরুল ইসলাম ও শাহাদত হোসেন। গতকাল রাত সাড়ে ৯টার দিকে এ হামলার ঘটনা ঘটে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বাহাদুরপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমানের বেনাপোলস্থ বাসভবনে নির্বাচনী আলোচনা করছিলেন লক্ষনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল হোসেন, যুবলীগ নেতা আশাসহ কয়েকজন আওয়ামী লীগ নেতা। এ সংবাদ পেয়ে বেনাপোল পৌরমেয়র আশরাফুল আলম লিটনের পোষ্য সন্ত্রাসী আকুল বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড কাগজপুকুরের শফিকুলসহ ১০/১২জন সন্ত্রাসী সেখানে হামলা চালায়। এ সময় কয়েকজন নেতাকর্মী  পালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও চেয়ারম্যান কামাল হোসেন, যুবলীগ নেতা আশা, আওয়ামী লীগ কর্মী নজরুল ইসলাম ও শাহাদত হোসেন পালাতে পারেননি। সন্ত্রাসীরা তাদেরকে গুলি করে ও কুপিয়ে গুরুতর আহত করে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, এ সময় সন্ত্রাসী শফিকুল চিৎকার করে বলে, যশোরের নেতাদের হুকুম পেয়েছি। লাশ ফেলে হলেও মিন্নুকে পাশ করাব।
এ ব্যাপারে বেনাপোল বন্দর থানার ওসি মোশাররফের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন সন্ত্রাসী ঘটনা ঘটেছে এবং চেয়ারম্যান কামালসহ ৪জন আহত হয়েছেন। সন্ত্রাসীদের আটকের চেষ্টা চলছে।
আহতদের শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হলে চেয়ারম্যান কামাল, আশা ও শাহাদত হোসেনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদেরকে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।