মণিরামপুরে কৃষকলীগ নেতা শফি কামাল হত্যায় ৮ আসামি কারাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক:যশোরের মণিরামপুরের গরীবপুর গ্রামের কৃষকলীগ নেতা শফি কামাল হত্যা মামলায় আত্মসমর্পণকারী আট আসামিকে জেলহাজতে পাঠিয়েছে আদালত। আসামিরা হলো, মাঝিয়ালি গ্রামের হোসেন আলীর ছেলে আলমগীর, আব্দুল করিমের ছেলে শামসুজ্জামান, রসিদ হোসেনের ছেলে ইউসুফ, চাঁদপুর গ্রামের মৃত আমান উল্লাহর ছেলে সাহেব আলী, লেদুর ছেলে উজ্জ্বল, হোসেন জমাদ্দারের ছেলে রিপন, হাশেম জোয়াদ্দারের ছেলে শফিকুল ও মৃত আনোয়ার উল্লাহর ছেলে শহীদ মেম্বর। সোমবার আসামিরা আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করলে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক আমিরুল ইসলাম শুনানি শেষে নামঞ্জুর করে আসামিদের জেলহাজতে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন। কৃষকলীগ নেতা শফি কামাল ১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের পক্ষে কাজ করেন। গত ২৬ ডিসেম্বর দুপুরে তিনি লোকজন নিয়ে গরীবপুর চাঁদপুর এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণায় যান। বেলা দুইটার দিকে দাখিল মাদ্রাসার সামনে পৌঁছালে একদল সন্ত্রাসী তাদের উপর হামলা করে। হামলাকারীদের লাঠির আঘাতে ঘটনাস্থলে শফি কামাল নিহত হন। এ ব্যাপারে নিহতের ছেলে হারুন-অর-রশিদ বাদী হয়ে ২৬ জনের নাম উল্লেখসহ অপরিচিত ব্যক্তিদের আসামি করে হত্যা মামলা করেন। পুলিশি গ্রেফতার এড়াতে ওই আটজন আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করে। মামলার শুনানি শেষে বিচারক জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে আসামিদের জেলহাজতে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন।