শপথ নিলেন মাহমুদ আলী ও নজরুল

শহীদুল ইসলাম:টানা দ্বিতীয় মেয়াদে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেয়া শেখ হাসিনার মন্ত্রিসভায় যোগ হলেন নতুন দুই জন।

নির্বাচনকালীন সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও দিনাজপুর-৪ আসনের সাংসদ এ এইচ মাহমুদ আলী মন্ত্রী হিসাবে এবং নরসিংদী-১ আসনের সংসদ সদস্য মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম হিরু প্রতিমন্ত্রী হিসাবে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের কাছ থেকে শপথ নিয়েছেন।

বুধবার দুপুরে বঙ্গভবনের ক্রেডেনশিয়াল হলে এই শপথ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও উপস্থিত ছিলেন।
মাহমুদ আলী শপথ অনুষ্ঠানে আসেন তার স্ত্রী শাহীন আলী ও ছোট ভাই মো. আলী শামীমকে নিয়ে। আর নজরুল ইসলামের সঙ্গে ছিলেন স্ত্রী ফারজানা নজরুল।

সংক্ষিপ্ত শপথ অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোশাররাফ হোসাইন ভূঁইঞা।

শেখ হাসিনার এই সরকারে গত ১২ জানুয়ারি শপথ নেন ৪৯ মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী, উপমন্ত্রী। তার দেড় মাসের মধ্যে মন্ত্রিসভার সম্প্রসারণ হলো। নতুন দুজনকে নিয়ে মন্ত্রিসভার আকার দাঁড়াল ৫১ জনে।

মঙ্গলবার শপথের আমন্ত্রণ পাওয়ার পর অবসরপ্রাপ্ত লেফটেন্যান্ট কর্নেল নজরুল ইসলাম বলেন, “প্রধানমন্ত্রী যে দায়িত্বই দিক, তা সঠিকভাবে পালনের সর্বোচ্চ চেষ্টা করব।”

নির্বাচনকালীন সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী তার আগের দায়িত্বে ফেরত আসছেন বলে আগে থেকেই ধারণা করা হচ্ছে।

নজরুল ইসলামও মঙ্গলবার বলেন, মাহমুদ আলী পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেবেন বলে তিনি শুনেছেন।

বিএনপিবিহীন দশম সংসদ নির্বাচনের পর গত ১২ জানুয়ারি নতুন মন্ত্রিসভা শপথ নেয়ার পর স্বরাষ্ট্র ও পররাষ্ট্রে পূর্ণমন্ত্রীর দায়িত্ব কাউকে দেয়া হয়নি।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে বর্তমানে শাহরিয়ার আলম প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বে রয়েছেন। মন্ত্রীবিহীন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব সামলাচ্ছেন প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

৪৯ সদস্যের মন্ত্রিসভায় সংসদে প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টির তিনটি পদ রয়েছে। জাসদ ও ওয়ার্কার্স পার্টি প্রধানেরা মন্ত্রী হয়েছেন। জাতীয় পার্টি জেপির প্রধানও মন্ত্রীর দায়িত্ব পান। বাকি সবাই আওয়ামী লীগের।