ডুমুরিয়ায় ফরাদুজ্জামান খুনের ঘটনায় মামলা, আটক ১

ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি :
ডুমুরিয়ার শোভনায় মসজিদের বালি চুরির ঘটনার প্রতিবাদ করায় মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক ফরাদুজ্জামান মোল্যাকে পিটিয়ে হত্যা করার ঘটনায় থানায় মামলা করা হয়েছে। নিহতের ভাই বাদী হয়ে শুক্রবার রাতে ৯ জনকে আসামি করে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পুলিশ শনিবার দুপুরে মামলার ১ আসামি কে গ্রেফতার করেছে।
স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার শোভনা ইউনিয়নের মৌলবীপাড়া জামে মসজিদের ক্রয়কৃত বালি এলাকার আমিন সরদার চুরি করে নেয় বলে অভিযোগ ওঠে। বিষয়টি নিয়ে শুক্রবার জুম্মার নামাজ আদায় শেষে মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও ইউনিয়ন সেচ্চাসেবক দলের সহসভাপতি ফরাদুজ্জামান উপস্থিত মুসল্লীদের অবিহিত করেন। তখন প্রতিপক্ষ আমিন সরদার ও তার অন্যান্য ভাইরা ফরহাদের ওপর চড়াও হয়। কিছুক্ষণ পরে সে বাড়ি ফেরার পথে আমিনদের বাড়ির সামনে পৌঁছলে তারা অতর্কিত ফরাদুজ্জামানের উপর হামলা চালায়। হামলায় ফরহাদ গুরুতর আহত হয়। পরে তাকে দ্রুত হাসপাতালে নেওয়ার পথিমধ্যে তার মৃত্যু হয়। নিহত ফরাদুজ্জামান আলহাজ্ব বাবর আলী মোল্যার ছেলে। এদিকে ফরহাদের নিহতের ঘটনাটি কিছুতেই মানতে পারছেন না এলাকাবাসী। ক্রমেই তারা ফুঁসে উঠছেন। বর্তমানে এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ ব্যাপারে নিহতের বড় ভাই মোঃ ফারুক হোসেন মোল্যা বাদি হয়ে শনিবার রাত্রে আমিন সরদার কে প্রধান করে ৯ জনের নামে ডুমুরিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।
থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার (ওসি) এম মসিউর রহমান জানান, মামলার আসামি শহিদ দফাদারকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্যান্য আসামিরা বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গেছে। এরপরও তাদের গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।