যশোরের ৩১ কলেজ ও মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা উপবৃত্তির টাকা পাবে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে

মিরাজুল কবীর টিটো:
যশোরের ৩১টি কলেজ ও মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে পাবে উপবৃত্তির টাকা। ইতোমধ্যে কার্যক্রম প্রায় শেষের দিকে।
যশোর সদর উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার কামরুজ্জামান জানান, আগে শিক্ষার্থীকে উপবৃত্তি দেয়ার জন্য ঝুমঝুমপুরের অগ্রণী ব্যাংকে একাউন্ট করানো হতো। এরপর চেক নিয়ে তাকে ব্যাংক থেকে নিতে হতো টাকা। এতে করে শিক্ষার্থীকে দুর্ভোগে পড়তে হতো। তাই শিক্ষার্থীদের দুর্ভোগ দূর করার লক্ষ্যে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে উপবৃত্তি দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এ কার্যক্রম বাস্তবায়নের লক্ষে যশোর সদর উপজেলা শিক্ষা অফিসারের উদ্যোগে ডাচ বাংলা ব্যাংকের সহযোগিতায় শিক্ষার্থীদের মোবাইল ব্যাংকিং কার্যক্রম ৪ জুন থেকে শুরু করা হয়েছে। এ কার্যক্রম শেষ হবে ১৬ জুন। এরপর শিক্ষার্থীদের তালিকা শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। সেখান থেকে উপবৃত্তির টাকা প্রতিটি শিক্ষার্থীর মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে পৌঁছে যাবে। আগামী জুলাই মাসে শিক্ষার্থীরা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে পাবে তাদের উপবৃত্তির টাকা।
আব্দুর রাজ্জাক কলেজের অধ্যক্ষ ইকবাল হোসেন জানান, সরকারের মোবাইল ব্যাংকিংয়ের কার্যক্রমটা ভাল। এতে করে শিক্ষার্থীরা সহজেই উপবৃত্তির টাকা পাবে। এতে কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ দুর্নীতি করে শিক্ষার্থীর উপবৃত্তির টাকা তুলতে পারবে না। কারণ টাকা চলে যাবে স্ব স্ব শিক্ষার্থীর মোবাইলে। একই কথা জানান, উপশহর মহিলা কলেজের অফিস সহকারী রবিউল ইসলাম রবি। এ ব্যাপারে যশোর জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার নাসির উদ্দিন জানান, শিক্ষার্থীর সুবিধার্থে মোবাইল ব্যাংকিং কার্যক্রম খুবই ভাল। এর ফলে উপবৃত্তির টাকা নেয়ার জন্য শিক্ষার্থীকে ব্যাংকে যেয়ে দুর্ভোগে পড়তে হবে না। ঘরে বসেই তারা মোবাইলের মাধ্যমে পেয়ে যাবে উপবৃত্তির টাকা।