যশোরে যৌতুক মামলায় একজনের কারাদন্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক:
যশোরে যৌতুক মামলায় আতিয়ার রহমান নামে এক ব্যক্তিকে ২ বছর কারাদন্ড ও অর্থদন্ড দিয়েছে আদালত। আতিয়ার সাতক্ষীরার শ্যামনগর থানার গড় কুমারপুর গ্রামের সদর আলী সানা ছেলে।
সোমবার এক রায়ে চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক শেখ মফিজুর রহমান এ সাজা দিয়েছেন।
মামলার অভিযোগে জানা গেছে, ১৯৯৯ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর আতিয়ার রহমান যশোর সদরের বসুন্দিয়া গ্রামের শাহাজাহান হাওলাদারের মেয়ে লাইলী আক্তারকে বিয়ে করে। বিয়ের সময় আতিয়ারের দাবিকৃত যৌতুকের ৪০ হাজার টাকা ও মালামাল দেন লাইলীর পিতা। কয়েক বছর যেতেনা যেতে আতিয়ার তার স্ত্রীর কাছে বাকি যৌতুকের টাকা দাবি করে নির্যাতন শুরু করে। লাইলী যৌতুকের টাকা এনে দিতে অস্বীকার করায় ২০১২ সালের ৪ এপ্রিল মারপিট করে পিতার বাড়ি তাড়িয়ে দেয়। মীমাংসায় ব্যর্থ হয়ে ১৭ এপ্রিল আদালতে মামলা করেন। এ মামলার রায়ে বিচারক আসামি আতিয়ার রহমানকে ২ বছর সশ্রম কারাদন্ড, ২ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ২ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন। সাজাপ্রাপ্ত আতিয়ার রহমান পলাতক রয়েছে।