চুকনগরের বাড়িতে ডাকাতি, ১০ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট

চুকনগর(খুলনা) প্রতিনিধি:
চুকনগরের একটি বাড়িতে ডাকাতি হয়েছে। অস্ত্রের মুখে পরিবারের সকলকে জিম্মি করে বাড়ি থেকে সোনার গহনা, নগদ টাকাসহ প্রায় ১০ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট করেছে ডাকাত দল। ঘটনাটি ডুমুরিয়া উপজেলার চুকনগর সদরের তেলপাম্পের কাছে একটি ভাড়া বাড়িতে ঘটেছে। গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে ১০-১৫ জনের সংঘবদ্ধ একটি ডাকাতদল ওই বাড়িতে হানা দেয়। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মালতিয়া গ্রামের প্রবাসী রবিউল ইসলামের নির্মিত ওই বাড়িতে ডুমুরিয়া সদরের প্রশান্ত দাশ নামের এক অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা স্বপরিবারে ভাড়া থাকেন। ওই পরিবারের কর্তা, তার স্ত্রী অনিতা রানী দাশ (৪০), মা রেনুকা রানী দাশ (৯০) তারা রাতের খাওয়া শেষে ঘুমিয়ে ছিলেন। অনিতা রানী দাশ জানান, রাত আনুমানিক ৩টার দিকে বাড়ির ক্লপসিবল গেটের তালা ভেঙে ভিতরে প্রবেশ করে সশস্ত্র ব্যক্তিরা। এরপর তারা শয়ন কক্ষের দরজার কব্জা শাবল দিয়ে খুলে ভিতরে প্রবেশ করে সকলকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে হাত, পা, মুখ বেঁধে রাখে ৬জন ডাকাত। অন্যান্য ডাকাত সদস্যরা আলমারিতে রক্ষিত নগদ ৬৫ হাজার টাকা, স্ত্রী ও মায়ের কাছে থাকা গহনা ও আলমরিতে আনুমানিক প্রায় ২০ ভরি সোনার গহনা, একটি ল্যাপটপ, ৩টি মোবাইল ফোন লুট করে নিয়ে যায়। ঘটনার খবর পেয়ে খুলনার পুলিশ সুপার হাবিবুর রহমান, অতিরিক্ত পুর্লিশ সুপার এসএম শফিউল্লাহসহ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ব্যাপারে প্রশান্ত কুমার দাশ বাদী হয়ে ডুমুরিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।