ডুমুরিয়ায় সন্ত্রাসী হামলায় স্বামী-স্ত্রী আহতের ঘটনায় মামলা, আটক নেই

চুৃকনগর প্রতিনিধি:
ডুমুরিয়া উপজেলার মাগুরাঘোনায় জমি জমা সংক্রন্ত বিরোধের জের ধরে সন্ত্রাসী হামলায় স্বামী স্ত্রী গুরুতর আহতের ঘটনায় থানায় মামলা করা হয়েছে। তবে এ পর্যন্ত পুলিশ কোন আসামি আটক করতে পারেনি।
গত ২০ জুন ডুমুরিয়া উপজেলার চুকনগরের মাগুরাঘোনা গ্রামে মৃত নাছের শেখের পুত্র ভুমি দস্যু শেখ আলী মুনছুর এর নেতৃত্বে অজ্ঞাত ৭-৮ জন তার সহোদর লুৎফর রহমান শেখের লিজ ঘের জবর দখল করে নেয়ার চেষ্টা চালায়। এ ঘটনায় লুৎফর ও তার স্ত্রী ছকিনা বেগম বাধা দিতে গেলে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে দেশীয় অস্ত্র সাস্ত্রে সজ্জিত হয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে লুৎফরকে ধারালো রাম দা দিয়ে কোপ মারে এতে লুৎফর গুরুতর রক্তাক্ত জখম হয়। এরপর তার স্ত্রী ছখিনাকে অন্যান্য আসামিরা পরিধেয় বস্ত্র খুলে শ্লীলতাহানি ঘটায়। খবর পেয়ে এলাকাবাসী ও পুলিশ আহতদের উদ্ধার করে ওই দিনে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করেন। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী লুৎফরের স্ত্রী ছকিনা বাদী হয়ে ৪ জনের নাম উল্লেখ করে ডুমুরিয়া থানায় স্বামীকে হত্যার প্রচেষ্টাকারী সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার আসামিরা হলেন- শেখ আলী মুনছুর ওরফে ডাকু মুনছুর, আবু তালেব, জেসমিন বেগম ও সাজু বেগম।
এদিকে বাদীনিকে মামলা তুলে নিতে আসামী পক্ষ হুমকি ধামকি, ভয় ভীতি দিচ্ছেন বলে বাদীর অভিযোগ।