বেনাপোল দিয়ে ভারতে গেছে ফ্রেন্ডশিপ মোটর র‌্যালি

শেখ কাজিম উদ্দিন, বেনাপোল :চার দেশের ফ্রেন্ডশিপ মোটর র‌্যালি বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে ভারতে গেছে।

মঙ্গলবার রাত ৮টা ৩০ মিনিটের সময় বেনাপোল চেকপোস্টে পৌঁছালে তাদেরকে প্রশাসনের কর্মকর্তারা ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। ইমিগ্রেশন ও কাস্টমসের কার্যাদি শেষে রাত ৯ টা ২০ মিনিটের সময় প্রতিনিধি দলের সদস্যরা মোটর র‌্যালি সাথে নিয়ে ভারতের ভূ-খন্ডে প্রবেশ করেন। এসময় পেট্রাপোল কাস্টমস, ইমিগ্রেশন, সীমান্তরক্ষী বিএসএফ কর্মকতা ও সামাজিক সংগঠনের নেতা, কর্মীরা র‌্যালিতে থাকা সদস্যদের আনুষ্ঠানিক স্বাগত জানায়।

র‌্যালিতে থাকা প্রতিনিধিরা সাংবাদিকদের বলেন, এই ফ্রেন্ডশিপ যাত্রার মধ্য দিয়ে উভয় দেশগুলোর সাথে বন্ধুত্ব সম্পর্ক্য বৃদ্ধির পাশাপাশি দ্রুত বাণিজ্য সম্পর্কেরও উন্নয়ন হবে।

বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনের অফিসার ইনচার্য(ওসি) তরিকুল ইসলাম পোর্ট থানার অফিসার ইনচার্য(ওসি) অপূর্ব হাসান মোটর র‌্যালিটি বাংলাদেশ থেকে পার হয়ে ভারতের ভুখন্ডে প্রবেশের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সংশিষ্ট সুত্রে জানা যায়, বাণিজ্য ও বন্ধুত্বের সম্পর্ক উন্নয়নে চার দেশ- বাংলাদেশ, ভুটান, ভারত ও নেপালের বিবিআইএন ফ্রেন্ডশিপ মোটর র‌্যালিটি গত ১৪ নভেম্বর ভারতের উড়িষ্যা রাজ্যের ভুবনেশ্বর এলাকা থেকে যাত্রা শুরু করে। র‌্যালির ২০ টি গাড়ি বহরে বাংলাদেশের ৬ জন, ভুটানের ৪ জন, নেপালের ৪ জন এবং ভারতের ৬৬ জন মিলিয়ে বিভিন্ন সরকারী-বেসরকারী পেষাজীবি নারী-পুরুষেরা রয়েছেন। এদের মধ্যে ৭৩ জন সদস্য ভারতে প্রবেশ করে। মটর র‌্যালিটি সর্বশেষ ১৮ দিনে ৪ হাজার ২’শ ২৩ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে কলকাতায় পৌছে আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে এই ফ্রেন্ডশিপ যাত্রার সমাপ্তি করবেন।

র‌্যালিতে বাংলাদেশের পক্ষে নেতৃত্ব দিচ্ছেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব নিরধ চন্দ্র মন্ডল, ভারতীয় দলের পক্ষে র‌্যালির চিফ কমিউনিকেশন অফিসার জগন্নাথিন সিজে, ভুটানের ফাইভ স্টার মেশিন গ্রিজের প্রধান নির্বাহী থিনলে ওয়াংচুক ও নেপাল দলটির নেতৃত্বে নেপাল অটোমোবাইল অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান দাসারাথ রিসাল।

সম্প্রতি প্রতিবেশি চার দেশের মধ্যে সড়কপথে সংযোগ স্থাপনের চুক্তি সম্পন্ন হয়। তারই ধারাবাহিকতায় আয়োজন করা হয় এই মৈত্রী র‌্যালি। চার দেশের সরকারের সহযোগিতায় র‌্যালির মূল আয়োজক ভারতের কলিঙ্গ মোটরস।