যশোর সদর পৌরসভা নির্বাচন: ৫ মেয়র প্রার্থীসহ ৭৫ জনের মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ

নিজস্ব প্রতিবেদক:আজ বৃহস্পতিবার পৌরসভা নির্বাচনের মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ ও জমা দেয়ার নির্ধারিত শেষ দিন। গতকাল বুধবার পর্যন্ত যশোর পৌরসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন ৭৫ জন। যার মধ্যে রয়েছে মেয়র প্রার্থী ৫ জন, কাউন্সিলর পদে ৫৭ জন ও ১৩ জন সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী। এর মধ্যে ৮ জন কাউন্সিলর ও ২ জন সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলরসহ মোট ১০ জন তাদের মনোনয়নপত্র রিটার্নিং অফিসার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিনের কাছে জমা দিয়েছেন। যশোর সদর উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
মেয়র পদে মনোনয়ন সংগ্রহ করা ৫ প্রার্থী হলেন মারুফুল ইসলাম, এসএম কামরুজ্জামান চুন্নু, মোস্তফা ফরিদ আহম্মেদ চৌধুরী, জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু ও মোহাম্মদ আলী।
বুধবার মনোনয়ন জমা দেয়া কাউন্সিলর প্রার্থীরা হলেন, ১ নম্বর ওয়ার্ডে হারুন-অর-রশিদ ফুলু ও বিএম লক্ষ্মী, ২ নম্বর ওয়ার্ডে শেখ সালাউদ্দিন, ৫ নম্বর ওয়ার্ডে হাবিবুর রহমান মণি চাকলাদার, ৮ নম্বর ওয়ার্ডে মনিরুজ্জামান মাসুম ও প্রদীপ কুমার নাথ বাবলু এবং ৯ নম্বর ওয়ার্ডে আজিজুল ইসলাম। সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন হাজেরা পারভীন ও রিনি বেগম।
মঙ্গলবার মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী মহিউদ্দীন। তফসিল অনুযায়ী আজ ৩ ডিসেম্বর বিকেল ৫টা পর্যন্ত মনোনয়নপত্র জমা দেয়া যাবে।
এদিকে সপ্তম দিনে কাউন্সিলর পদে নির্বাচন করতে ইচ্ছুক ৩ জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন। যার মধ্যে রয়েছেন ১ নম্বর ওয়ার্ডের বিলকিস সুলতানা সাথী, ২ নম্বর ওয়ার্ডের একে ফজলুল হক ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডের ডাক্তার আব্দুল মতিন। এছাড়া ৪, ৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ড থেকে সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন বর্তমান কাউন্সিলর রোকেয়া পারভীন ডলি।
কাউন্সিলর পদে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করা প্রার্থীদের মধ্যে ১নম্বর ওয়ার্ড থেকে ৭ জন রয়েছেন। যার মধ্যে বর্তমান কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর আহম্মাদ শাকিল, জাকির হোসেন রাজিব, বিএম লক্ষ্মী, আবু রায়হান, হারুন-অর-রশিদ ফুলু, মুজিবর রহমান ও হারেজ আলী। ২ নম্বর ওয়ার্ড থেকে ৬ জন। এরা হলেন বর্তমান কাউন্সিলর শেখ সালাউদ্দিন, রাশেদ আব্বাস রাজু, তপন কুমার ঘোষ, এসএম শাকিল সিদ্দিকী রাজু, মুন্সি মহিউদ্দিন আহমেদ ও একে ফজলুল হক। ৩ নম্বর ওয়ার্ড থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন ৪জন। এরা হলেন বর্তমান কাউন্সিলর শেখ মোকসিমুল বারী অপু, শেখ মোহাম্মদ কামরুজ্জামান, কামরুজ্জামান ও মরুফ হোসেন। ৪ নম্বর ওয়ার্ড থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন ৫জন। এরা হলেন জাহিদ হোসেন, মেস্তাফিজুর রজমান, রবিউল ইসলাম শাহীন, নুরুল ইসলাম ও মারিফুল ইসলাম। ৫ নম্বর ওয়ার্ড থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন ৯ জন। এরা হলেন হাবিবুর রহমান মণি চাকলাদার, হাফিজুর রহমান, রাজিবুল ইসলাম, আব্দার রহমান, এহসানুল হক সেতু, আজিজুল হক, সৈয়দ টিপু মাহমুদ জয়, শাহাজাদা নেওয়াজ ও হাফিজুল ইসলাম। ৬ নম্বর ওয়ার্ড থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন ৬ জন। এরা হলেন শেখ ইউনুস আলী, বর্তমান কাউন্সিলর এড. হাজী আনিছুর রহমান, মীর্জা আলমগীর, এসএম আজাহার হোসেন স্বপন, আলমগীর কবীর সুমন ও শেখ কুতুব উদ্দীন প্রিন্স। ৭নম্বর ওয়ার্ড থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন ৫জন। এরা হলেন বর্তমান কাউন্সিলর এড. জুলফিকার আলী, গোলাম মোস্তফা, মহাসিন আলী, আবু শাহ জালাল ও সাজ্জাদ মোস্তফা। ৮ নম্বর ওয়ার্ড থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন ৪জন। এরা হলেন বর্তমান কাউন্সিলর মনিরুজ্জামান মাসুম, প্রদীপ কুমার নাথ বাবলু, শেখ পিয়ার মোহাম্মদ পিয়ারু ও সাবেক কাউন্সিলর সন্তোষ দত্ত। ৯ নম্বর ওয়ার্ড থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন ৬জন। এরা হলেন বর্তমান কাউন্সিলর কাজী নাজির আহম্মেদ, আজিজুল ইসলাম, আসাদুজ্জামান আসাদ, আসাদুজ্জামান বাবুল, নুর ইসলাম খান ও আবু জাফর।
এছাড়া সংরক্ষিত মহিলা আসনে ১, ২ ও ৩ নম্বর ওয়ার্ড থেকে নির্বাচন করতে ইচ্ছুক ৮ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। এরা হলেন মিসেস হাজেরা পারভীন, সুফিয়া বেগম, অর্চণা অধিকারী, রোকেয়া বেগম, এড. সেলিনা আক্তার সুরভী ও কোহিনুর বেগম মনি, রিনি বেগম ও আইরিন পারভীন। ৪, ৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ড থেকে নির্বাচন করতে ইচ্ছুক ৩জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।
এরা হলেন রাশিদা রহমান, নাসিমা আক্তার জলি ও সৈয়দা সামারাতুর দ্দৌর এবং ৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ড থেকে মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন সাবিয়া সুলতানা।
উপজেলা নির্বাচন অফিসার ওয়াহিদা আফরোজ জানান, উপজেলা অফিসে আজ বৃহস্পতিবার মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিন। মনোনয়ন পত্র দাখিল করার সময় স্ব স্ব প্রাথীদেরও ‘ঢ’ ফরম (আয় ব্যয়ের হিসাব), জামানতের চালান, শিক্ষাগত যোগ্যতার সর্বোচ্চ সার্টিফিকেট, টিআইএন এর সনদ, সর্বশেষ দাখিলকৃত আয়কর রিটার্নের রশিদ বা প্রত্যয়ন, প্রার্থী- প্রস্তাবকারী ও সমর্থনকারীর আইডি কার্ডের ফটোকপি, প্রার্থীর ২ কপি সত্যায়িত ছবি সংযুক্ত করতে হবে বলে তিনি জানান। তিনি আরো জানান, মনোনয়নপত্রের সাথে জমা দেয়া প্রয়োজনীয় হলফনামা ৩শ’ টাকা স্ট্যাম্পের উপর করতে হবে। তিনি আরো বলেন, মেয়র প্রার্থীর জন্য রাজনৈতিক দল ১লাখ টাকার অধিক ব্যয় করতে পারবে না। এছাড়া মনোনয়ন পত্র দাখিলের সময় ৫জনের বেশি সমর্থক নিয়ে আসা যাবে না এবং কোন প্রকার মিছিল বা শো-ডাউন করা যাবে না।