সাবেক এমপি মুহাদ্দিস আবু সাঈদ আটক, দাবি পরিবারের

নিজস্ব প্রতিবেদক:যশোরে জামায়ত নেতা ও সাবেক সংসদ সদস্য যশোর সদর উপজেলার পদ্মবিলা মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মুহাদ্দিস আবু সাঈদকে পুলিশ আটক বলে তার পরিবার অভিযোগ করেছে। শহরের চৌরাস্তা মোড় থেকে রোববার বিকেলে পুলিশ তাকে ধরে নিয়ে যায়। এরপর থেকে তার আর কোন খোঁজ পাওয়া যাচ্ছেনা। এ অভিযোগ করেছেন মুহাদ্দিস আবু সাঈদের বড় ছেলে হাবিব কায়সার।
সাবেক সংসদ সদস্য মুহাদ্দিস আবু সাঈদের বড় ছেলে হাবিব কায়সার বলেন, তার পিতা পদ্মবিলা মাদ্রাসার অধ্যক্ষ। রোববার বিকেল ৩টার দিকে তার পিতা মুহাদ্দিস আবু সাঈদ এবং ছোট ভাই জাহিদ ইকবাল সদর উপজেলা ভূমি অফিসে প্রয়োজনীয় কাজের জন্য যান। সেখান থেকে কাজ শেষে বিকেল সোয়া ৩টার দিকে চৌরাস্তা মোড়ে যান। চৌরাস্তায় যাবার পর পুলিশ সেখান থেকে তাকে আটক। এরপর থেকে তার পিতার কোন খোঁজ পাওয়া যাচ্ছেনা। তার পিতার মোবাইল ফোন সেটও বন্ধ রয়েছে। সাথে তার ছোট ভাই ছিলো। কিন্তু ছোট ভাইয়ের মোবাইল ফোন চালু থাকলেও রিং হওয়া সত্বেও কেউ রিসিভ করছেনা।
এ ব্যাপারের যোগাযোগ করা হলে ডিবি পুলিশের ওসি আলী আহমেদ হাশমী জানান, মুহাদ্দিস আবু সাঈদ নামে কাউকে তার ডিবি পুলিশ আটক করেনি।
এদিকে কোতয়ালি মডেল থানার ওসি মোবাইল ফোনে রিং দেয়া হলে রিসিভ করেন সেকেন্ড অফিসার এসআই মোকাদ্দেস হোসেন। তিনি বলেন, এই নামে পুলিশ কাউকে আটক করেছে কি না তা তার জানা নেই।
অপরদিকে যোগাযোগ করা হলে সদর পুলিশ ফাঁড়ির টিএসআই রফিকুল ইসলাম বলেন, তিনি মুহাদ্দিস আবু সাঈদকে আটক করেননি।
উল্লেখ্য, মুহাদ্দিস আবু সাঈদ বিএনপি-জমায়াতে জোট আমলের যশোর-২ আসনের সংদসদ সদস্য ছিলেন।