যবিপ্রবি’র কর্মচারি বাদলের ওপর হামলাকারী ছাত্রদের বহিস্কার দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক:যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মচারি সমিতির সাধারণ সম্পাদক বদিউজ্জামান বাদল হত্যা চেষ্টাকারি ছাত্রদের বহিস্কার করতে হবে। আহত বাদলের চিকিৎসা ও মামলার দায়িত্ব বিশ্ববিদ্যালয় কর্তপক্ষকে নিতে হবে। অন্যথায় ১৯ ডিসেম্বর সভা করে কঠোর কর্মসূচী নেয়া হবে। সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি তুলে ধরেন কর্মকর্তা কর্মচারী ঐক্য পরিষদের সদস্য সচিব আশিকুর রহমান।
লিখিত বক্তেব্যে তিনি বলেন, গত ১০ ডিসেম্বর সিনিয়র নিরাপত্তা প্রহরী কর্মচারী সমিতির সাধারণ সম্পাদক বদিউজ্জামান বাদল বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে কর্মরত ছিলেন। সন্ধ্যা ৬টার দিকে কয়েকজন ছাত্র তার উপর হামলা করে গুরুতর জখম করে। এসম বিশ্ববিদ্যালয়ে কয়েকজন কর্মচারি তাকে উদ্ধারে গেলে তারা তাদেরও বেদম মারপিট করে। বর্তমানে বাদল যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।
তিনি বলেন, বাদলকে যারা হামলা করে আহত করেছে তারা চিহ্নিত হয়েছে। তাদের বহিস্কারের ব্যাপারে ভিসি মহোদয়ের কাছে স্বারকলিপি দেয়া হয়েছে। একই সাথে বাদল বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত থাকা অবস্থায় হামলার শিকার হওয়ায় তার চিকিৎসা ও হামলাকারীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তপক্ষ হামলাকারী ছাত্রদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থ গ্রহন না করলে ১৯ ডিসেম্বর সভা করে কঠোর কর্মসূচী গ্রহণ করা হবে।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন কর্মকর্তা কর্মচারী ঐক্য পরিষদের আহবায়ক ডা.দীপক কুমার মন্ডল, সদস্য আব্দুর রশীদ, মুন্সি মনিরুজ্জামান, আরশাদ আলী, এমদাদুল হক, হেলাল উদ্দিন পাটোয়ারী প্রমুখ।