ঝিনাইদহে বৃদ্ধ বাবাকে মাদকাসক্ত সাজিয়ে নিরাময় কেন্দ্রে পাঠানোর অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালীগঞ্জ>
ঝিনাইদহ সদর উপজেলার রাঙ্গিয়ারপোতা গ্রামে ইসলাম উদ্দীন (৬৫) নামে এক বয়স্ক ব্যক্তিকে মাদকাসক্ত সাজিয়ে নিরাময় কেন্দ্রে পাঠানোর অভিযোগ উঠেছে। পারিবারিক বিরোধের জের ধরে ইসলাম উদ্দীনের ছেলে জাহিদ এই ন্যাক্কার ঘটনার সাথে জড়িত বলে গ্রামবাসীর অভিযোগ। এ নিয়ে রাঙ্গিয়ারপোতা গ্রামে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে।
সরেজমিনে গ্রামবাসী জানায়, গত ২২ নভেম্বর ইসলাম উদ্দীন বাজার করতে চুয়াডাঙ্গা উপজেলার সরোজগঞ্জ হাটে যান। সাথে তার ছেলে জাহিদুল ইসলাম ছিলেন। সরোজগঞ্জ বাজারের রাশিদুল ইসলামের জুতার দোকানে বসে থাকা অবস্থায় ৭/৮ জন যুবক সন্ত্রাসী স্টাইলে ইসলাম উদ্দীনকে বেধড়ক পিটিয়ে একটি মাইক্রোবাসে তুলে চুয়াডাঙ্গা শহরের দিকে নিয়ে যান। বাড়ি ফিরে জাহিদুল ইসলাম প্রচার করে তার বাবাকে কে বা কারা অপহরণ করে নিয়ে গেছে। গ্রামবাসীর চাপে ৪/৫ দিন পর ছেলে জাহিদুল জানায়, তার বাবা মাদকাসক্ত। তাই চুয়াডাঙ্গার প্রত্যয় মাদক নিরাময় কেন্দ্রে চিকিৎসা নিচ্ছেন। অভিযোগ পাওয়া গেছে, টাকার বিনিময়ে চুয়াডাঙ্গার প্রত্যয় মাদক নিরাময় কেন্দ্রের লোকজন ভালো মানুষকেও সন্ত্রাসী কায়দায় তুলে নিয়ে সেখানে আটকে রাখে। বয়োবৃদ্ধ ইসলাম উদ্দীনের ক্ষেত্রেও তাই ঘটেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
বিষয়টি নিয়ে রাঙ্গিয়ারপোতা গ্রামের বাসিন্দা সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাসেম বিশ্বাস জানান, আমরা ইসলাম উদ্দীনকে চিনি। তিনি কখনোই মাদকসেবী ছিলেন না। পরিবারিক বিরোধর কারণে তাকে মাদকাসক্ত সাজানো হয়েছে। সাধুহাটী ইউনিয়নের আরেক সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান জানান, ইসলাম উদ্দীন ষড়যন্ত্রের শিকার। প্রশাসনের উচিৎ বিষয়টি তদন্ত করে দোষী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া। তিনি ইসলাম উদ্দীনকে পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেয়ার দাবি করেছেন।