নাগরিক সংলাপে পৌর মেয়র> যশোর পৌরসভাকে জলজট ও যানজটমুক্ত করা হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক>
বুধবার বিকালে সচেতন নাগরিক কমিটির (সনাক) আয়োজনে যশোর পৌর পরিষদের সাথে সুধীবৃন্দের নাগরিক সংলাপ হয়েছে। প্রেসক্লাব যশোরের অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত সংলাপে সভাপতিত্ব করেন সনাকের সভাপতি এমআর খাইরুল উমাম। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন পৌর মেয়র জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু।
নাগরিক সংলাপে মেয়র বলেন, যশোর পৌসভাকে আলোকিত করে সাজানো হবে। শুধু প্রধান সড়কে নয়, বাইলেন সড়কেও আগামী ২ মাসের মধ্যে এলইডি লাইট লাগানো হবে। আমরা প্রধান সড়কের পাশে ফুটপাত মানুষের চলাচলের জন্য রাখতে চাই। যেকারণে সব ফুটপাত দখলমুক্ত করা হয়েছে। আগামীতে যেসব সড়ক নির্মাণ করা হবে তার গুনগতমান সঠিক রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তিনি বলেন, শিগগিরই ভৈরব নদের সংস্কার কাজ শুরু হচ্ছে। ইতিমধ্যে এর জন্য ২৮০ কোটি টাকা সরকার বরাদ্দ দিয়েছে। এরমধ্যে ১০ কিলোমিটার শহরের মধ্যে সংস্কার হবে। পৌরপার্কটিকে ঢেলে সাজানো হচ্ছে। শহরের ৯টি ওয়ার্ডে ময়লা দেখাতে পাবেননা আগামীতে। প্রতিটি ওয়ার্ডে একাধিক কন্টেইনার থাকবে। কন্টেইনার ভরার সাথে সাথে সেটি নিয়ে গিয়ে নতুন কন্টেইনার বসবে। আমি আশাবাদী যশোর পৌরসভাকে জলজট ও যানজটমুক্ত শহর উপহার দিতে পারব। কেননা ইজিবাইক চলাচল ২ হাজারের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবে।
নাগরিক সংলাপে বক্তব্য রাখেন সনাকের সাবেক সভাপতি ড, মুস্তাফিজুর রহমান, সুরাইয়া শরীফ, মাষ্টার নূর জালাল, তারাপদ বিশ্বাস, অর্চ্যনা বিশ্বাস, সাইফুজ্জামান মজু, মনিরুল ইসলাম প্রমুখ।