যশোরে মাসব্যাপী নারী উদ্যোক্তাদের ফ্রিল্যান্সার ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ উদ্বোধন

প্রেস বিজ্ঞপ্তি>
যশোর জেলা প্রশাসক ড. মোঃ হুমায়ুন কবীর বলেছেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে ডিজিটাল সেন্টার উদ্যোক্তারা যে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে সেখানেও পিছিয়ে নেই নারী dc-jessoreউদ্যোক্তারা। পুরুষের পাশপাশি সমভাবে নিরালস কাজ করে যাচ্ছে তারাও। দক্ষতা বৃদ্ধিতে প্রশিক্ষনের বিকল্প নেই। প্রশিক্ষণকে কাজে লাগিয়ে ডিজিটাল সেন্টার পরিচালনার পাশপাশি নারী উদ্যোক্তাদের ফ্রিল্যান্সার হিসাবে অর্থনৈতিক ভাবে সমৃদ্ধ হতে হবে।
গতকাল যশোর কালেক্টরেট সভাকক্ষ – ২ এ সকাল দশটায় মাসব্যাপী নারী আইসিটি ফ্রিল্যান্সার ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন কর্মসূচির আওতায় গ্রাফিক্স ডিজাইন বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( শিক্ষা ও আইসিটি) মোঃ পারভেজ হাসান।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন মাস ব্যাপী এ প্রশিক্ষণ কর্মশালার প্রশিক্ষক কো ফাউন্ডার অফ হাইটেকভ্যালীর গ্রাফিক্স ডিজাইনার সাইফুল ইসলাম তপু, সাইফুল ইসলাম, ফ্রি ল্যান্সার ও গ্রাফিক্স ডিজাইনার তাওহীদ পিয়াস, সহঃ প্রশিক্ষক ও প্রশিক্ষণ সমন্বয়কারী যশোর পৌর ডিজিটাল সেন্টার উদ্যোক্তা শিরিনা পারভীন ও কেশবপুর পৌর ডিজিটাল সেন্টার উদ্যোক্তা বিল্লাল হোসেন।
যে সব ইউডিসি নারী উদ্যোক্তারা প্রশিক্ষন নিচ্ছেন তারা হলেন যশোর সদর উপজেলার আরবপুরের রাবেয়া খাতুন, চাঁচড়ার নারগিস পারভীন, বসুন্দিয়ার শারমিন সুলতানা, কেশবপুর উপজেলার মঙ্গলকোটের রেহেনা সুলতানা, বিদ্যানন্দকাঠির তাজমীন নাহার হীরা,বাঘারপাড়া উপজেলার জহুরপুরের আফসানা মিমি,ধলগ্রামের হোসনেয়ারা পারভীন, চৌগাছা উপজেলার চৌগাছার লিপি খাতুন, হাকিমপুরের বিউটি পারভীন, ঝিকরগাছা উপজেলার শিমুলিয়ার ফারাজানা ইয়াসমিন টপি, শংকরপুরের পারভীনা খাতুন, মণিরামপুর উপজেলার ভোজগাতীর শিরিনা খাতুন মিতা, চালুয়াহাটির ফারহানা ইয়াসমিন প্রিয়া,মনোহরপুরের চন্দনা রায়,শার্শা উপজেলার ডিহির রেহেনা খাতুন, লক্ষণপুরের নাজনীন খাতুন, নিজামপুরের খাদিজা খাতুন, অভয়নগর উপজেলার চলিশিয়ার রুমানা আফরোজ, পায়রার মিতা পারভীন এবং শ্রীধরপুরের ইয়াসমিন খাতুন।