সুন্দরবনে পর্যটকবাহী লঞ্চে আগুনের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি >
পূর্ব সুন্দরবনের হাড়বাড়িয়া এলাকায় পর্যটকবাহী লঞ্চে আগুন লাগার ঘটনায় ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে বনবিভাগ। সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জে’র সহকারী বন সংরক্ষক (এসিএফ) মেহেদীজ্জামানকে প্রধান করে এ কমিটি করা হয়েছে। কোস্ট গার্ড, মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ, ফায়ার সার্ভিস সদস্যরা প্রায় আড়াই ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।
তদন্ত কমিটির অপর দুই সদস্য হলেন, চাঁদপাই স্টেশন কর্মকর্তা আলাউদ্দিন ও হাড়বাড়িয়া ফরেস্ট ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামরুল ইসলাম। কমিটিকে আগুন লাগার কারণ নির্ণয় করে আগামী ৫ কার্যদিবসের মধ্যে পূর্ব সুন্দরবনের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা সাইদুল ইসলামের কাছে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। এছাড়া লঞ্চটি বনের মধ্যে অবস্থানকালে ভ্রমণ নীতিমালা ভঙ্গ করেছে কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে বন বিভাগ। তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পরই লঞ্চের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানিয়েছে বন বিভাগ।
শুক্রবার সন্ধ্যায় হাড়বাড়িয়া ফরেস্ট ক্যাম্প সংলগ্ন খালে নোঙ্গর করে থাকা পর্যটকবাহী লঞ্চ এমভি ফেলিকন-১ এ আকস্মিক অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে লঞ্চটির পিছনের অংশ থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। মুহূর্তের মধ্যে আগুন ছড়িয়ে পড়ে পুরো লঞ্চ জুড়ে। এ সময় লঞ্চে থাকা ২৬ পর্যটক ও স্টাফরা দ্রুত হাড়বাড়িয়া ঘাটের পন্টুনে নেমে আশ্রয় নেন। অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে কোস্ট গার্ড, মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ, ফায়ার সার্ভিস সদস্যরা ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে প্রায় আড়াই ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি।