ফুলতলায় স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টা ও ছবি নেয়ার অভিযোগে আটক ১

ফুলতলা (খুলনা) প্রতিনিধি>
স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টা ও ছবি তুলে প্রতারণা অভিযোগের সত্যতা মেলায় দুই বখাটের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। একই সাথে পুলিশ তৌফিক এলাহী (২২) নামে এক যুবককে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করে।
ওই ছাত্রীর বাবার দায়েরকৃত অভিযোগে জানা যায়, তার কন্যা (১৩) গত শনিবার সকালে স্কুলে যাওয়ার পথে তাজপুর গ্রামের আ. রউফের পুত্র তৌফিক এলাহী কৌশলে তাকে ফুঁসলিয়ে বাজারে তাদের আবাসিক হোটেল চৌরঙ্গীর একটি কক্ষে নিয়ে যায়। এ সময় মোবাইল ফোনে তার ছবি ধারণ করা হয়। পরে তৌফিকের বন্ধু ও শিকির হাটের গেন্ডু মিয়ার পুত্র মেহেদী হাসান (২১) ওই ছাত্রীকে আবারও কৌশলে তাজপুর গ্রামের একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে নিয়ে মোবাইল ফোনে তার আপত্তিকর ছবি ধারণ ও ধর্ষণ চেষ্টা করে। ধারণকৃত ছবির মেমোরি কার্ড ফেরত নিতে হলে মেহেদী হাসানকে ২০ হাজার টাকা দিতে হবে বলে শর্ত দেয়। শর্তে সম্মত হয়ে ওই ছাত্রী বাড়িতে ফিরে তার পরিবারকে জানায়। বিষয়টি জানতে পেরে তার বাবা স্কুলের অধ্যক্ষ প্রফুল্ল কুমার চক্রবর্তীকে বিষয়টি অবহিত করেন। অধ্যক্ষ তাৎক্ষনিকভাবে শিক্ষক খুকু কুন্ডুকে প্রধান ও নাজমা সুলতানা এবং সেলিনা খাতুনকে সদস্য করে তদন্ত কমিটি গঠন করেন। কমিটির তদন্ত প্রতিবেদনে অভিযোগের সত্যতা মেলায় তৌফিক এলাহী ও মেহেদী হাসানকে আসামি করে ফুলতলা থানায় মামলা দায়ের করা হয়। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই কামরুজ্জামান এজাহারভূক্ত আসামি তৌফিককে আটক করে বুধবার জেল হাজতে প্রেরণ করেন।
ফুলতলায় দুস্থ মহিলাদের
মাঝে কম্বল বিতরণ
ফুলতলা (খুলনা) প্রতিনিধি
ফুলতলার যুগ্নিপাশা গ্রাম দারিদ্র বিমোচন কমিটির উদ্যোগে ও ব্র্যাক টিইউপি কর্মসূচির সহযোগিতায় বুধবার বিকেলে স্থানীয় প্রাইমারি স্কুল চত্বরে দুস্থ মহিলাদের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়। কমিটির সভাপতি কাজী আবুল বাশার বাচ্চুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- ব্র্যাকের আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক মাসুদ রানা, সিএম নীতিশ বিশ্বাস, উপজেলা প্রেসক্লাব সভাপতি শামসুল আলম খোকন, ইউপি সদস্য কবিতা পারভীন, শিক্ষক হাবিবুর রহমান, ব্র্যাক কর্মকর্তা মারুফা খাতুন, আসাদুজ্জামান, এরশাদ আলী, শিউলী রায়, আরিফুজ্জামান, শেখ তৈয়েবুর রহমান প্রমুখ। এ সময় শতাধিক মহিলাদের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়।