সুন্দরবনে বন্দুকযুদ্ধে দু’দস্যু নিহত, ১১ অস্ত্র উদ্ধার

আ. মালেক রেজা, শরণখোলা>
পূর্ব সুন্দরবনে র‌্যাবের সাথে বন্দুকযুদ্ধে বনদস্যু সামসু বাহিনীর ২ সদস্য নিহত হয়েছে। বুধবার সকালে শরণখোলা রেঞ্জের দুধমূখীর বাদামতলী খাল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে । ঘটনাস্থল থেকে ১১ টি অস্ত্র ও বিপুল পরিমাণ গোলা বারুদ উদ্ধার করা হয়েছে ।
র‌্যাব-৮’র উপ অধিনায়ক মেজর আদনান কবীর জানান, সকালে র‌্যাব-৮ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল আনোয়ার উজ জামানের নেতৃত্বে একটি টহল দল সুন্দরবনের দুধমুখীর বাদামতলা খাল এলাকা দিয়ে যাওয়ার সময় বনের মধ্যে বনদস্যু সামসু বাহিনীর আস্তানা দেখতে পেয়ে আস্তানার দিকে এগিয়ে গেলে সামসু বাহনিীর সদস্যরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি বর্ষণ করে । এসময় র‌্যাবও পাল্টা গুলি ছোড়ে। উভয় পক্ষে প্রায় ৩০ মিনিট গুলি বিনিময় হয়। এক পর্যায়ে দস্যুরা বনের মধ্যে পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থলের আশে পাশে তল্লাশি চালিয়ে ২ বনদস্যুর লাশ এবং বিপুল পরিমাণ আগ্নেয়াস্ত্র গোলা বারুদ উদ্ধার করে। নিহত দস্যুদের নাম আলামিন(৩৫) ও হোসাইন মোল্লা(৩০)। এদের বাড়ি বাগেরহাট এলাকায় বলে র‌্যাব জানায়। উদ্ধারকৃত আগ্নেয়াস্ত্রের মধ্যে দোনালা বন্দুক ২টি, একনালা বন্দুক (বিদেশি) ৪টি, .২২ বোর বিদেশি রাইফেল ১টি, এয়ার রাইফেল ২টি, এলজি ২টি, ১২ বোর রাইফেলের গুলি ৩০ রাউন্ড, .২২ বোর রাইফেলের গুলি ৫০ রাউন্ড, এয়ার রাইফেলের গুলি ৯৬ রাউন্ড, বন্দুকের ফায়ারকৃত কার্তুজ (খোসা) ৫১টি।
এ ব্যাপারে র‌্যাবের ডিএডি আনোয়ার হোসেন জানান, তিনি বাদী হয়ে সন্ধ্যায় শরণখোলা থানায় দু’টি মামলা দায়ের এবং নিহত বনদস্যুদের লাশ, উদ্ধারকৃত অস্ত্র ও গোলা বারুদ শরণখোলা থানায় হস্তান্তর করেছেন ।
শরণখোলা থানার অফিসার ইনচার্জ আ. জলিল জানান, বনদস্যুদের লাশ ময়না তদন্তের জন্য বৃহস্পতিবার সকালে বাগেরহাট পাঠানো হবে ।