চুয়াডাঙ্গায় ছাত্রীর অপমৃত্যুতে যশোর শিক্ষা বোর্ডের তদন্ত

মিরাজুল কবীর টিটো>
চুয়াডাঙ্গা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেনীর ছাত্রী সুরাইয়া সুলতানা রিমু অপমৃত্যুর ঘটনায় যশোর শিক্ষাবোডের্র দুই সদস্যের কমিটি ঘটনার তদন্ত করেছে। কমিটির সদস্য শিক্ষাবোর্ডের উপপরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ( উচ্চ মাধ্যমিক) সমীর কুমার কুন্ডু ও সহকারী পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ( মাধ্যমিক) রেজাউল ইসলাম বুধবার বিদ্যালয়ে গিয়ে ঘটনার তদন্ত করেন।
গত শনিবার সন্ধ্যায় ছাত্রী সুরাইয়া চুয়াডাঙ্গা শহরের সবুজপাড়ার বাড়িতে ওড়নায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে।
ওইদিন দুপুরে বিদ্যালয়ের ১ নম্বর কক্ষে পরীক্ষায় অংশ নেয় সুরাইয়া। গণিতের প্রশ্ন কঠিন হওয়ায় এক সহপাঠীর কাছে বুঝে নিতে সহযোগিতা চাইলে দায়িত্বরত কক্ষ পরিদর্শক ওয়াহিদা পারভীন ছাত্রী সুরাইয়াকে ৫মিনিট দাঁড় করিয়ে রাখেন ও বাজে মন্তব্য করেন। এতে সে মানসিক আঘাত পায় ও লেখার আগ্রহ হারিয়ে ফেলে। এরপর বাড়িতে গিয়ে সে আত্মহত্যা করে।
বিষয়টি পত্রিকায় প্রকাশিত হওয়ায় তোলপাড় শুরু হয়। এঘটনায় চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসনও ৫ সদস্যের কমিটি গঠন করে।
যশোর শিক্ষা বোর্ডের সচিব ড. মোল্লা আমীর হোসেন জানান, ঘটনাটি একটি জাতীয় পত্রিকায় দেখে মঙ্গলবার দুই সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। এ কমিটি বুধবার বিদ্যালয়ে গিয়ে ঘটনার তদন্ত করেন। তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন পাওয়ার পর ব্যবস্থা নেয়া হবে।
তদন্ত কমিটির সদস্য উপপরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ( উচ্চ মাধ্যমিক) সমীর কুমার কুন্ড বলেন, ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। আজ বৃহস্পতিবার তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়া হবে।