জয়িতাদের সম্মাননা জানানোর দিন

স্পন্দন ডেস্ক>
‘রঙিন পৃথিবী রঙিন আলো, সফল নারী থাকুক ভালো’ স্লোগানকে সামনে রেখে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস পালিত হয়েছে গতকাল দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলের বিভিন্ন জেলা উপজেলায়। জেলা ও উপজেলা প্রশাসন এবং মহিলা অধিদফতরের আয়োজনে দিবসটি উপলক্ষে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের জন্য নারীদেরকে জয়িতা সম্মাননা জানানো হয়েছে। সফল জননী, শিক্ষা ও চাকরি ক্ষেত্রে সুনাম অর্জন, নির্যাতনের বিভিষিকা মুছে ফেলে নতুন উদ্যোগে জীবন শুরু, অর্থনৈতিকভাবে সফলতা ও সমাজ উন্নয়নে অবদানের জন্য জয়িতাদের এ সম্মাননা জানানো হয়। এছাড়া অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে ছিল শোভাযাত্রা ও আলোচনা অনুষ্ঠান।
প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :
যশোর : যশোরের নয় জয়িতাকে জেলা প্রশাসন ও জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয়ের পক্ষ থেকে সম্বর্ধনা ও সম্মাননা জানানো হয়েছে। শুক্রবার সকালে প্রেসক্লাব যশোরের মিলনায়তরে আয়োজিত অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে সফল ওই নারীদের হাতে সম্মাননা-ক্রেস্ট তুলে দেন প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক ড. হুমায়ুন কবীর। এ বছর উপজেলা পর্যায়ে পাঁচ ক্যাটাগরিতে এবং জেলা পর্যায়ে চার ক্যাটাগরিতে মোট নয়জন সফল জয়িতাকে সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়েছে। জেলা ও উপজেলা উভয় পর্যায়ে সুফিয়া বেগম এবারের সফল জননী হওয়ার গৌরব অর্জন করেছেন। একইভাবে শিক্ষা ও চাকরি ক্ষেত্রে সুনাম অর্জন করায় চিকিৎসক সিনথিয়া সোমা চক্রবর্তী এবং নির্যাতনের বিভিষিকা মুছে ফেলে নতুন উদ্যোগে জীবন শুরু করায় রোজিনা খাতুন সম্বর্ধিত হয়েছেন। অন্যদিকে, অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জন করায় জেলা পর্যায়ে মোছা. জুবাইদা নাজনীন ডলি এবং উপজেলা পর্যায়ে আবিদা সুলতানা মুক্তি এই সম্মাননা পেয়েছেন। সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদানের জন্য উপজেলা পর্যয়ে সম্বর্ধিত হয়েছেন লিপিকা দাশ গুপ্তা।
জেলা প্রশাসন ও জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয় আয়োজিত আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, জয়িতা সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা সখিনা খাতুন। বিশেষ অতিথি ছিলেন জয়তি সোসাইটির নির্বাহী পরিচালক অর্চনা বিশ্বাস।
অনুষ্ঠানে যশোর ব্রাকের পক্ষ থেকে নারী নির্যাতনে করণীয় ও সামাজিক সচেতনতামূলক নাটিকা উপস্থাপন করা হয়। ভৈরব গণনাট্য দল ‘জাগো সমাজ’ নামে এই নাটক পরিবেশন করে।
মনিরামপুর:মনিরামপুরে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ ও বেগম রোকেয়া দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে শুক্রবার উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে মহিলা অধিদপ্তর আয়োজিত আলোচনা ও জয়িতা পুরস্কার বিতরনী সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন লাভলু, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ কামরুল হাসান, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাজমা খানম, জেলা শ্রমিকলীগ নেতা বাবুল করিম বাবলু, পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা নিতাই চন্দ্র পাল, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা জিএম শহিদুল ইসলাম, কাউন্সিলর গীতারানী কুন্ডু, তৃপ্তিরানী বৈরাগী প্রমূখ। এসময় অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ ৪ নারীকে জয়িতা-২০১৬ সম্মাননা জানানো হয়। এরা হলেন নুরজাহান বেগম, সুষমা রানী, আকলিমা খাতুন ও তানজিলা খাতুন। এদের প্রত্যেককে ক্রেস্ট ও সনদ প্রদান করা হয়।
কেশবপুর : উপজেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অফিসের আয়োজনে শুক্রবার বেগম রোকেয়া দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও জয়িতাদের সংবর্ধনা প্রদান উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার শরীফ রায়হান কবিরের সভাপতিত্বে ও মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মৌসুমী আক্তারের পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান এইচ এম আমির হোসেন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ রানা ও উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এস আর সাঈদ। আরো বক্তব্য শিক্ষিকা অর্পণা আইচ, বিলকিস আরা বিলি, কুলসুম বেগম, আসাদুজ্জামান, সুরাইয়া প্রমুখ। অনুষ্ঠানে সমাজ সেবায় অবদান রাখায় পৌর কাউন্সিলর মনিরা খানম, শিক্ষায় অবদান রাখায় প্রভাষক মাহফুজা, সফল জননী রোমেচা বেগম ও সংগ্রামী নারী জেসমিন নাহারকে জয়িতা নির্বাচন করে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।
নড়াইল : পাঁচ জয়িতাকে সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। জেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আয়োজনে শুক্রবার (৯ ডিসেম্বর) সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়। এ বছর অর্থনৈতিক সাফল্যে লোহাগড়া উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নের চোরখালী গ্রামের বিধবা নারী প্রমিলা কীত্তর্নীয়া, নির্যাতিতা নারী হিসেবে লোহাগড়ার দিঘলিয়া গ্রামের ভিক্টোরিয়া আক্তার, শিক্ষা ও চাকুরিতে কালিয়ার মির্জাপুর গ্রামের বিধবা শাহানারা পারভীন, সফল মা হিসেবে সদরের শিমুলিয়া গ্রামের ছালেহা বেগম এবং সমাজ উন্নয়নে শেখহাটি ইউনিয়নের হাতিয়াড়া গ্রামের কানন বালা গুপ্ত।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) কাজী মাবুবুর রশীদ। এ সময় অন্যান্যের উপস্থিত ছিলেন জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা আনিছুর রহমান, লোহাগড়া মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মৌসুমী মজুমদার, নড়াইলকণ্ঠ অনলাইন নিউজের সম্পাদক কাজী হাফিজুর রহমান, জেলা মহিলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক রাবেয়া ইউসুফ প্রমুখ।

কালিগঞ্জ (সাতক্ষীরা): সকাল ১১ টায় অফিসার্স ক্লাবে জয়িতাদের সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আয়োজনে ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) শিমুল কুমার সাহার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার গোলাম মঈনউদ্দীন হাসান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা দূর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি একে মুনসুর আহম্মেদ, বেসরকারি সংস্থা সুশিলন’র উপ-পরিচালক মোস্তফা আক্তারুজ্জামান পল্টু, উপজেলা লেডিস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইলাদেবী মল্লিক, উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি শেখ সাইফুল বারী, উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. জাফরুল্যাহ ইব্রাহিম এবং নির্বাচিত জয়িতাদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন জেবুন্নাহার খাতুন। অনুষ্ঠান থেকে পাঁচ জয়িতাকে মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে ক্রেস্ট ও সনদ প্রদান করা হয়। মনোনীত পাঁচ জয়িতা হলেন যথাক্রমে অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জনের জন্য দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়নের শ্রীকলা গ্রামের আব্দুল হামিদের স্ত্রী জেবুন্নাহার খাতুন, শিক্ষা ও চাকুরি ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জনের জন্য মথুরেশপুর ইউনিয়নের বসন্তপুর গ্রামের শেখ ইসহাক আলীর মেয়ে রাবেয়া খাতুন, সফল জননী হিসেবে মৌতলা ইউনিয়নের পানিয়া গ্রামের শহীদ ছকিম উদ্দীনের স্ত্রী জহুরা খাতুন, নির্যাতনের বিভীষিকা মুছে ফেলে নতুন উদ্যমে জীবন শুরুর জন্য ধলবাড়িয়া ইউনিয়নের রঘুরামপুর গ্রামের জগন্নাথ বসাকের স্ত্রী যমুনা বসাক এবং সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখার জন্য ধলবাড়িয়া ইউনিয়নের হয়েত আলী গাজীর স্ত্রী আমেনা খাতুন।
পাইকগাছা : পাইকগাছায় ৫ জয়িতাকে সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। সকালে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শেষে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা কৃষি অফিসার এএইচএম জাহাঙ্গীর আলমের সভাপতিত্বে আলোচনা ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাওঃ শেখ কামাল হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহানারা খাতুন, অধ্যক্ষ মিহির বরণ মন্ডল, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা রেজাউল করিম ও অ্যাডঃ শেখ লোকমান হোসেন। প্রভাষক বজলুর রহমানের পরিচালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান। বক্তব্য রাখেন, অধ্যাপক জিএমএম আজহারুল ইসলাম, সাংবাদিক আব্দুল আজিজ, প্রভাষক ময়নুল ইসলাম, গোলাম সরোয়ার, সিরাজ উদ্দীন ও জেবুন্নেছা খাতুন। অনুষ্ঠানে সমাজ উন্নয়নে অসামন্য অবদান রাখায় ফজিলাতুন্নেছা, “নির্যাতনের বিভীষিকা মুছে ফেলে নতুন উদ্যামে জীবন শুরু করায় শাহানারা বেগম, সফল জননী জহুরা বেগম ও শিক্ষা ও চাকরির ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জনকারী ইতু রানী বিশ্বাসকে শ্রেষ্ঠ জয়িতার সম্মাননা জানানো হয়।