ডুমুরিয়ায় হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ঘুষ গ্রহনের অভিযোগ

ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি >
ডুমুরিয়ায় হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা এসএম হাসমত আলীর বিরুদ্ধে এক কর্মচারীর এরিয়া বিল বাবদ সাড়ে ৪হাজার টাকা ঘুষ গ্রহনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত সোমবার ভুক্তভোগী ওই টিএফপিএ’র কর্মচারী (অব.) শেফালী রাণী রায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট এ অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, থানা পরিবার পরিকল্পনা অবসরপ্রাপ্ত সহকারী কর্মচারী শেফালী রাণী রায় গত ৯ নভেম্বর তার বকেয়া ও উৎসবভাতা উত্তোলন করতে উপজেলা হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তার কার্যালয়ে যান। তখন তার পাওনা টাকা ১৩ হাজার ৫৫৫ টাকার মধ্য হতে হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা হাসনাত আলী ৫ হাজার টাকা উৎকোচ দাবি করেন। এসময় শেফালী বলেন- এতো টাকা কেন দিতে হবে, আমি খুব অসহায়? জবাবে হাসনাত আলী তাকে বলেন- এরিয়া বিল করলে প্রত্যেক চাকুরে এ পরিমাণ টাকা দিয়ে যায়। ওটা চাওয়া লাগে না। এক পর্যায়ে শেফালী রাণীর নিকট থেকে সাড়ে ৪ হাজার টাকা উৎকোচ গ্রহন করে ওই হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা।
এ বিষয়ে উপজেলা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা হাসমত আলীর কাছে জানতে চাইলে তিনি কোন কিছুই না বলে ফোনটি কেটে দেন। তারপর থেকে একাধিকবার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।
এ প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সিফাত মেহনাজ বলেন, আমি প্রাথমিকবাবে তাকে বলবো। প্রয়োজনে তার উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করবো।
প্রসঙ্গত, ভুক্তভোগী শেফালী রানীর স্বামী ২০১০ সালে ক্যান্সার জনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। তার স্বামীও একই পদে চাকরি করতেন। বর্তমান শেফালী রানী বড় অসহায়ভাবে জীবন-যাপন করছেন।