জেলা পরিষদ নির্বাচন > খুলনায় চেয়ারম্যান পদে ৩জন, সংরক্ষিত ১৬ ও সাধারণ সদস্য পদে ৪৯জন লড়ছেন

সুব্রত কুমার ফৌজদার, ডুমুরিয়া, খুলনা>
আগামী বুধবার অনুষ্ঠিত হবে খুলনা জেলা পরিষদ নির্বাচন। চেয়ারম্যান পদে ৩জন, ৫টি সংরক্ষিত সদস্যপদে ১৬জন এবং ১৫টি সাধারণ সদস্য পদে ৪৯জন,) ২০টি পদে ৬৮জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। প্রত্যেক ওয়ার্ডে একটি করে মোট ১৫টি ভোট কেন্দ্রের ৩০টি বুথে ভোটারেরা ভোট প্রদান করবেন।
নির্বাচন দফতর সুত্রে জানা যায়, আগামী বুধবার অনুষ্ঠিত হবে খুলনা জেলা পরিষদ নির্বাচন। এলক্ষ্যে সকল প্রস্তুতি প্রায় সম্পন্ন। জেলার ১৫টি ওয়ার্ডে ২২৯জন মহিলাসহ মোট ভোটার রয়েছে ৯৭০ জন। সকাল ৯টা থেকে বিকাল ২টা পর্যন্ত ১৫টি ওয়ার্ডের ৩০টি বুথে ভোটারেরা ভোট প্রদান করবে। চেয়ারম্যান পদে বর্তমান জেলা পরিষদের প্রশাসক ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হারুনুর রশিদ(আনারস), অজয় সরকার(চিংড়ী মাছ) ও আলী আকবর শেখ (কাপ-পিরিচ) প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এদিকে সাধারণ সদস্য পদে ১৩নম্বর ওয়ার্ড তেরখাদার ছাগলাদহ, তেরখাদা, সাচিয়াদাহ, বারাসাত, আজগড়া ইউনিয়নে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় এসএম খালেদীন রশিদী সুকর্ন নির্বাচিত হয়েছেন।
এছাড়া সাধারণ সদস্যপদে ১নম্বর ওয়ার্ড দাকোপের চালনা পৌরসভা, সুতারখালী, কামারখোলা, তিলডাঙ্গা ও পানখালী ইউনিয়নে কবির হোসেন খান(তালা), গোলাম মোস্তফা খান(হাতি), জালাল উদ্দীন গাজী(টিউবওয়েল), ২নম্বর ওয়ার্ড দাকোপের বাজুয়া, দাকোপ, কৈলাশগঞ্জ, লাউডোব, বানীশান্তা ইউনিয়নে রজত কান্তি শীল(তালা), শেখ যুবরাজ(টিউবওয়েল), ৩ নম্বর ওয়ার্ড কয়রার মহেশ্বরীপুর, কয়রা, মহারাজপুর, উত্তরবেদকাশী, দক্ষিনবেদকাশী ইউনিয়নে আব্দুল আল মাসুদ(ঘুড়ি), কেরামত আলী(হাতি), মোছা: লুৎফুন্নেছা(তালা), জহুরুল হক(টিউবওয়েল), ৪ নম্বর ওয়ার্ড বটিয়াঘাটার আমিরপুর, বালিয়াখালী, ভান্ডারকোট, গঙ্গারামপুর, সুরখালী ইউনিয়নে দিলীপ হালদার(তালা), ইমরান মোল্যা(টিউবওয়েল), মোশারফ হোসেন(বৈদ্যুতিকপাখা), ৫ নম্বর ওয়ার্ড বটিয়াঘাটা, ডুমুরিয়া ও দিঘলিয়া উপজেলার জলমা, বটিয়াঘাটা, ভান্ডারপাড়া, গুটুদিয়া ও আড়ংঘাটা ইউনিয়নে অভিজিৎ চন্দ(তালা), মিজানুর রহমান(টিউবওয়েল), রবীন্দ্র ঢালী(বৈদ্যুতিকপাখা), ৬ নম্বর ওয়ার্ড ডুমুরিয়ার আটলিয়া, মাগুরাঘোনা, খর্ণিয়া, শোভনা ও রুদাঘরা ইউনিয়নে সামছুর রহমান(তালা), শেখ আনিছুর রহমান(টিউবওয়েল), শেখ কামরুল হাসান(হাতি), ৭ নম্বর ওয়ার্ড ডুমুরিয়ার ধামালিয়া, রঘুনাথপুর, ডুমুরিয়া, সাহস ও রংপুর ইউনিয়নে আব্দুল লতিফ মোড়ল(অটোরিক্সা), রকিবুল ইসলাম গাজী(তালা), সরদার আবু সালেহ(হাতি), ৮ নম্বর ওয়ার্ড ফুলতলা ও দিঘলিয়ার ফুলতলা, আটরা-গিলাতলা, জামিরা, দামোদর ও যোগীপোল ইউনিয়নে আসলাম খান(অটোরিক্সা), সাজ্জাদুর রহমান(হাতি), শেখ আবিদ হোসেন(টিউবওয়েল), শেখ কামাল আহমেদ(তালা), ৯ নম্বর ওয়ার্ড দিঘলিয়ার বারাকপুর, দিঘলিয়া, গাজীরহাট, সেনহাটি, এবং তেরখাদার মধুপুর ইউনিয়নে আলমগীর হোসেন(টিউবওয়েল), মোল্যা আকরাম হোসেন(তালা), শেখ মারুফুল ইসলাম(হাতি), ১০ নম্বর ওয়ার্ড কয়রার আমাদী, বাগালী, পাইকগাছার চাঁদখালী, গড়াইখালী, লষ্কর ইউনিয়নে কমলেশ সানা(হাতি), গাজী মোহাম্মদ আলী(টিউবওয়েল), হাবিবুল্লাহ বাহার(তালা), ১১ নম্বর ওয়ার্ড পাইকগাছা পৌরসভাসহ গদাইপুর, রাড়–লী, কপিলমুনি, হরিঢালী ইউনিয়নে এসএম সামছুর রহমান(তালা), শেখ আনিছুর রহমান(টিউবওয়েল), শেখ কামরুল হাসান(হাতি), ১২ নম্বর ওয়ার্ড পাইকগাছার সোলাদানা, দেলুটি, লতা এবং ডুমুরিয়ার মাগুরখালী ও শরাফপুর ইউনিয়নে উবাঈদ উল্লাহ(তালা), নির্মল মন্ডল(হাতি), মান্নান গাজী(বৈদ্যুতিকপাখা, সুকৃতি সরকার(টিউবওয়েল), ১৪ নম্বর ওয়ার্ড রূপসার শ্রীফলতলা, আইচগাতী, টিএস বাহিরদিয়া, নৈহাটি ও ঘাটভোগ ইউনিয়নে শেখ আবু জাফর(তালা), সুজিত অধিকারী(টিউবওয়েল), ১৫ নম্বর ওয়ার্ড খুলনা সিটি কর্পোরেশনে এফএম সাইফুজ্জামান(হাতি), এসএম আকিল উদ্দিন(ক্রিকেট ব্যাট), রায়হান ফরিদ(ঘুড়ি), খান হুমায়ুন কবির(তালা), মনিরুজ্জামান খান(বৈদ্যুতিকপাখা), শেখ মোশারফ হোসেন(টিউবওয়েল), সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১ নম্বর ওয়ার্ডে জয়ন্তী রানী সরদার(হরিন), বিজলী বৈদ্য(দোয়াতকলম), ২ নম্বর ওয়ার্ডে ভগবতী গোলদার(দোয়াতকলম), রেহেনা আফরোজা(হরিন), শোভা রানী হালদার(ফুটবল), ৩ নম্বর ওয়ার্ডে আক্তারুন্নেছা(ফুটবল), তহমিনা বেগম(বই), ফারহানা নাজনীন(টেবিলঘড়ি), আসমা বেগম(হরিন), শাহিদা ইসলাম নয়ন(দোয়াতকলম), ৪ নম্বর ওয়ার্ডে এসনেয়ারা খানম(টেবিলঘড়ি), দীপ্তি চক্রবর্তি(দোয়াতকলম), নাহার আক্তার(ফুটবল), মোছা: নাহার পারভীন(হরিণ), ৫ নম্বর ওয়ার্ডে জেসমিন পারভীন(হরিণ) ও হালিমা ইসলাম(টেবিলঘড়ি) প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মাদ হাবিবুর রহমান বলেন, নির্বাচনের সকল প্রস্তুতি প্রায় সম্পন্ন। এ নির্বাচনে প্রত্যেক ওয়ার্ড এলাকাভুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যবৃন্দ ভোট প্রদান করবে। এছাড়া ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে সিটি কর্পোরেশনের সকল ওয়ার্ডসহ জেলার সকল উপজেলার চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানদ্বয় ভোট প্রদান করবে। প্রত্যেক ওয়ার্ডে ভোট কেন্দ্রে ১জন প্রিজাইডিং, ২জন সহকারী প্রিজাইডিং ও ৪জন পোলিং এজেন্ট নিয়োগ করা হয়েছে।