নড়াইল জেলা পরিষদ নির্বাচনে আ.লীগ প্রার্থীর প্রচারণা

ফরহাদ খান>
নড়াইল জেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী অ্যাডভোকেট সৈয়দ আইয়ুব আলী (জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি) বিভিন্ন ইউনিয়নে গণসংযোগ করেছেন। বৃহস্পতিবার নড়াইলের চাঁচুড়ি, পুরুলিয়া, সালামাবাদ, বাবরা-হাচলা, পাঁচগ্রাম, ইলিয়াসাবাদ. কলাবাড়িয়া, বাঐসোনা, জয়নগর ও খাশিয়াল ইউনিয়নসহ কালিয়া পৌর এলাকায় গণসংযোগ করে তার আনারস প্রতীকে ভোট প্রার্থনা করেন তিনি। এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দীন খান নিলু, লোহাগড়া উপজেলা শাখার সভাপতি সিকদার আব্দুল হান্নান রুনু, নড়াগাতি থানা শাখার সভাপতি মফিজুল হক, জেলা শাখার সহ-সভাপতি মোল্যা এমদাদুল হক, শিকদার আজাদুর রহমান, শাহীদুল ইসলাম শাহী, সাংগঠনিক সম্পাদক মঞ্জুরুল করিম মুন, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শেখ বোরহান আহম্মেদ রাজু, সদস্য ওয়াহিদুজ্জামান হিরা, লোহাগড়া পৌর শাখার সভাপতি ও লক্ষèীপাশা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান কাজী বনি আমিনসহ দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। সৈয়দ আইয়ুব আলী বলেন, ভোটারদের ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি। আশা করছি বিজয়ী হবো। বিজয়ী হলে নড়াইলকে সুন্দর ও ভালো জেলা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করব। ডিজিটাল বাংলাদেশকে আরো এগিয়ে নিতে কাজ করে যাব।
এ নির্বাচনে চশমা প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন অপর চেয়ারম্যান প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য অ্যাডভোকেট সোহরাব হোসেন বিশ্বাস। এছাড়া ১৪ জন সংরক্ষিত মহিলা সদস্য এবং ৫৮ জন সদস্য প্রার্থী প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। ৫৫৪জন ভোটারের কাছে প্রার্থীরা ছুটছেন সকাল থেকে রাত অবধি। ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী শেখ ছদর উদ্দীন শামীম (উটপাখি প্রতীক) বলেন, বারবার ভোটারদের কাছে যাচ্ছি, ভোট প্রার্থনা করছি। আশা করছি বিজয়ী হবো। সংরক্ষিত ৪নম্বর ওয়ার্ডের মহিলা সদস্য প্রার্থী রওশন আরা বেগম লিলি (দেয়াত কলম প্রতীক) বলেন, ভোটারদের ভালো সাড়া পাচ্ছি। তিনজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও বিজয়ের ব্যাপারে আশাবাদী আমি। জয়পুর ইউনিয়নের ভোটার তাসলিমা ও পারভীন বেগম জানান, ভালো ও যোগ্য প্রার্থীকে ভোট দিবেন তারা। সহকারী রির্টানিং কর্মকর্তা সেখ আনোয়ার হোসেন জানান, নড়াইল জেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটার সংখ্যা ৫৫৪। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৪২৫ এবং নারী ভোটার ১২৯। ওয়ার্ড সংখ্যা ১৫টি। আগামি ২৮ ডিসেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।