যশোর জেলা পরিষদের নির্বাচন ১১ নম্বরে ফারুখ, ১২ নম্বরে গৌতম ও ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে মিলন সদস্য নির্বাচিত

আব্দুল মতিন ও নূরুল হক>
ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে ৩ ওয়ার্ডে সাধারণ ও সংরক্ষিত সদস্য পদে জেলা পরিষদের নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। সকাল ৯ টা হতে দুপুর ২ টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে এই ভোট গ্রহন চলে। জেলা পরিষদের ১৫ টি সাধারণ ওয়ার্ডের মধ্যে যশোরের মণিরামপুরে ১১ নম্বর ওয়ার্ডে এমএম ফারুখ হুসাইন বৈদ্যুতিক পাখা প্রতিক নিয়ে ২৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। ১২ নম্বর ওয়ার্ডে (মণিরামপুর পৌরসভা, মনিরামপুর সদর, ঢাকুরিয়া, শ্যামকুড়, খানপুর ও দুর্বাডাঙ্গা ইউনিয়ন) ৩৩ ভোট পেয়ে মণিরামপুরের পূজা পরিষদ নেতা গৌতম চক্রবর্তী নির্বাচিত হন। মণিরামপুর উপজেলার ভোজগাতি, কাশিমনগর, রোহিতা, খেদাপাড়া, ঝাঁপা, চালুয়াহাটি ও হরিহরনগর ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে সাংবাদিক শহীদুল ইসলাম মিলন ৪৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন।
অপরদিকে মনিরামপুর উপজেলার ১০ ইউনিয়ন, যশোর সদরসহ অভয়নগর ইউনিয়নের ৯ ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত সংরক্ষিত নারী আসন ১০, ১১ ও ১২ নম্বর ওয়ার্ডে ১৩১ ভোট পেয়ে লাইলা খাতুন নির্বাচিত হয়েছেন। মনিরামপুর ও কেশবপুর পৌরসভাসহ ২ উপজেলার ১৯ ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত ১৩, ১৪ ও ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে সংরক্ষিত নারী আসনে রুকসানা ইয়াসমিন পান্না ২০৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।