প্রেসক্লাব যশোরের নির্বাচন> সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন ও সম্পাদক তৌহিদুর রহমান

নিজস্ব প্রতিবেদক>
উৎসবমূখর পরিবেশে বৃহস্পতিবার প্রেসক্লাব যশোরের দ্বিবার্ষিক নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। নির্বাচনে সভাপতি পদে জাহিদ হাসান টুকুন ও সম্পাদক পদে এসএম তৌহিদুর রহমান পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন। এবার দৈনিক স্পন্দনের ৬ সাংবাদিক বিভিন্ন পদে জয়ী হয়েছেন।
দৈনিক যশোরের সম্পাদক জাহিদ হাসান টুকুন ৫৬ ভোট পেয়েছেন। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্ধী একরাম উদ দ্দৌলা পেয়েছেন ৩০ ভোট।
সম্পাদক পদে দৈনিক সমকাল ও চ্যানেল টুয়েন্টি ফোরের স্টাফ রিপোর্টার এসএম তৌহিদুর রহমান ৪৭ ভোট পেয়েছেন। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্ধী অনলাইন পোর্টাল সুবর্ণভূমির সম্পাদক আহসান কবীর পেয়েছেন ৪০ ভোট।
সহসভাপতির ২টি পদে দৈনিক স্পন্দনের মফস্বল সম্পাদক মনোতোষ বসু পূর্ণনির্বাচিত হয়েছেন। তিনি ভোট পেয়েছেন ৫২। এই পদের দৈনিক লোকসমাজের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আনোয়ারুল কবির নান্টু ৪৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। আরেক প্রতিদ্বন্ধী লোকসমাজের সহবার্তা সম্পাদক শেখ আব্দুল্লাহ হুসাইন পেয়েছেন ৩১ ভোট।
যুগ্ম সম্পাদকের দুইটি পদে প্রতিদ্বন্ধিতা করেছিলেন ৪ জন। এদের মধ্যে দৈনিক স্পন্দনের সহসম্পাদক এইচআর তুহিন ৫২ ভোট এবং দৈনিক গ্রামের কাগজের জুয়েল মৃধা ৪১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। এই পদের আরেক দুই প্রতিদ্বন্ধী এনএনবির যশোর জেলা প্রতিনিধি জাহিদুল কবির মিল্টন ৩৭ ভোট এবং দৈনিক সময়ের খবরের যশোর প্রতিনিধি জাহিদ আহমেদ লিটন পেয়েছেন ২২ ভোট। কোষাধ্যক্ষ পদে ৪৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন দৈনিক স্পন্দনের নিজস্ব প্রতিবেদক কাজী আশরাফুল আজাদ। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্ধী বিটিভির জেলা প্রতিনিধি ওহাবুজ্জামান ঝন্টু পেয়েছেন ৪০ ভোট। দফতর সম্পাদক পদে ঢাকা ট্রিবিউনের যশোর জেলা প্রতিনিধি তৌহিদ জামান ৪৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্ধী গ্রামের কাগজের বিশেষ প্রতিনিধি দেওয়ান মোর্শেদ আলম পেয়েছেন ৩৯ ভোট।
নির্বাহী সদস্যের ৬টি পদে প্রতিদ্বন্ধিতা করেছিলেন ১১ জন। এদের মধ্যে কালের কন্ঠের ফটো সংবাদিক ফিরোজ গাজী ৫৬ ভোট, এনটিভির স্টাফ করসপনডেন্ট ও বাংলাদেশ প্রতিদিনের যশোর জেলা প্রতিনিধি সাইফুল ইসলাম সজল ৫৩ ভোট, জিটিভির জেলা প্রতিনিধি তহীদ মনি ৫২ ভোট, দেশ টিভির জেলা প্রতিনিধি আমিনুর রহমান মামুন ৪৭ ভোট, বাসস ও বাংলাদেশ বেতারের যশোর প্রতিনিধি এবং দৈনিক স্পন্দনের নিজস্ব প্রতিবেদক সাজ্জাদ গণি খান রিমন ৪১ ভোট এবং বণিক বার্তার যশোর প্রতিনিধি এবং দৈনিক স্পন্দনের নিজস্ব প্রতিবেদক আব্দুল কাদের ৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।
এই পদে বাকি ৫জন দৈনিক লোকসমাজের স্টাফ রিপোর্টার বিএম আসাদ ৩৪ ভোট, দৈনিক সমাজের কাগজের জিএম সোহরাব হোসেন ৩৪ ভোট, দৈনিক লোকসমাজের মোস্তফা রুহুল কুদ্দুস ২৮ ভোট, গ্রামের কাগজের সহবার্তা সম্পাদক মোহাম্মদ হাকিম ২৭ ভোট এবং আইয়ুব হোসেন ১৬ ভোট পেয়েছেন।
প্রেসক্লাবের কার্যনির্বাহী পরিষদের ১৫টি পদের বিপরীতে ১৪টি পদে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। বাকি একটি পদ সমাজসেবা ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে দৈনিক স্পন্দনের চিফ রির্পোটার মিজানুর রহমান মুন আগেই বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় নির্বাচিত হন।
এরআগে উৎসব মুখর পরিবেশে প্রেসক্লাব চত্বরে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত একটানা ভোট গ্রহণ চলে। ক্লাবের মোট ৮৮ সদস্যের মধ্যে ৮৭জন সদস্য ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। এদিন সকাল থেকে ফলাফল ঘোষণার আগ পর্যন্ত যশোরের বিভিন্ন শ্রেণি পেশার লোকজন এসে ভিড় করেন প্রেসক্লাব প্রাঙ্গনে। তারা বেশ আগ্রহ সহকারে অপেক্ষা করেন ভোটের ফলাফল জানার জন্য।
ভোট গ্রহণ শেষে নির্বাচন কমিশনের চেয়ারম্যান অ্যাড. কাজী আব্দুস শহিদ লাল ফলাফল ঘোষণা করেন। তার সাথে ছিলেন সদস্য সচিব মোস্তাফিজুর রহমান কাবুল এবং সদস্য হিসাবে ছিলেন জেলার সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা গাজী জাকির হোসেন।
এদিকে প্রেসক্লাবের নবনির্বাচিত কমিটিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন দৈনিক স্পন্দনের সম্পাদক ও প্রকাশক,যশোর-৩ আসনের এমপি আলহাজ শেখ অফিল উদ্দিন, নির্বাহী সম্পাদক মাহবুব আলম লাবলু এবং দৈনিক স্পন্দন পরিবার। এছাড়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন, যশোর পৌরসভার মেয়র জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু, সাবেক মেয়র মারুফুল ইসলাম, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সম্পাদক ইয়াকুব কবির, যশোর চেম্বারের সাবেক সভাপতি মিজানুর রহমান খান, শ্রমিক নেতা সেলিম রেজা মিঠু, মুসলিম এইডের অধ্যক্ষ আরিফ নুর, জাগরনী চক্র ফাউন্ডেশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা হাসিব নেওয়াজ, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সুকুমার দাস প্রমুখ।