স্বাগত ২০১৭

মুর্শিদুল আজিম হিরু>
শুভ নববর্ষ। স্বাগত ২০১৭ খ্রিস্টাব্দ। নতুন বছরের প্রথম সূর্য উঠেছে আজ। বহু ঘটনার স্বাক্ষী হয়ে কাল রাত ১২টা ১ মিনিটের সাথে সাথে স্মৃতি হয়ে গেল ২০১৬ খ্রিস্টাব্দ। নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে মানুষের উদ্দীপনার কমতি ছিল না। রাত ১২টা ১ মিনিটে ব্যাপক উচ্ছ্বাসের সাথে বিশ্ববাসীর সাথে আমরাও স্বাগত জানিয়েছি ইংরেজী নববর্ষকে।
দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে বাণী দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি অ্যাডভোকেট আব্দুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ, বিএনপির সভানেত্রী খালেদা জিয়া।
বছর শেষে প্রাপ্তি অপ্রাপ্তির হিসাব মেলানোর ইচ্ছা জাগে সবার। নানা উত্থান-পতন, প্রাপ্তি ও বিসর্জনের মধ্য দিয়ে কেটেছে ২০১৬ খ্রিস্টাব্দ। ছিল কিছু আলোচিত সমালোচিত ঘটনা।
বর্তমান সরকারের ধারাবাহিক সফলতার একটি হচ্ছে বছরের প্রথম দিন শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেয়া। বছরের প্রথম দিনটি শুরু হবে বই উৎসব দিয়ে। এ উৎসবে অংশ নিবে দেশের লাখ লাখ শিশু কিশোর। শিক্ষাকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়েছে এ সরকার। তারই ধারাবাহিকতায় বছরের প্রথম দিনই প্রথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেয়া হয়। প্রাথমিক ও গণ শিক্ষা মন্ত্রনালয় এদিন দেশের শিক্ষার্থীদের জন্য ‘বই উৎসব’ হিসেবে ঘোষনা করেছে। গত কয়েক বছরের চেয়ে এবার হরতাল অবরোধের বাধা ছাড়া শিক্ষার্থীরা দিয়েছে সকল পরীক্ষা। এ বছরও যেন কোন হরতাল অবরোধের কবলে শিক্ষার্থীরা না পড়ে এটাই কাম্য দেশবাসির।
দেশের ১০ কোটি নাগরিককে মেশিন রিডেবল স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বা এনআইডি কার্ড দিচ্ছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। বিশ্বে সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে বাংলাদেশের প্রধান ও আলোচিত উদ্ভাবন বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট প্রকল্প। বাংলাদেশের প্রথম কৃত্রিম উপগ্রহ প্রকল্প এটি। এটি ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন কর্তৃক বাস্তবায়িত হবে প্রকল্পটি। বিভিন্ন চড়াই উৎরাই পার করে অনুমোদন পায় এই প্রকল্পটি।
চলতি বছরের ওয়ার্ল্ড অর্গানাইজেশন অব গভার্নেন্স অ্যান্ড কম্পিটিটিভনেস, প্লান ট্রিফিনিও, গ্লোবাল ফ্যাশন ফর ডেভেলপমেন্ট এবং যুক্তরাষ্ট্রের কানেকটিকাট প্রদেশের নিউ হেভেন বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কুল অব বিজনেস হতে ‘আইসিটি ফর ডেভেলপমেন্ট অ্যাওয়ার্ড’ লাভ করেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। বছরের ১৯ সেপ্টেম্বর ডিজিটাল বিশ্বের পথে বাংলাদেশকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য তাকে এই পুরস্কারের জন্য মনোনীত করা হয়।
ইয়াং গ্লোবাল লিডার ও ভয়েস অব গ্লোবাল আইসিটি বিভাগে দ্যা ওয়ার্ল্ড ইকোনমি ফোরাম(ডবি¬উইএফ) হতে দুটি পুরস্কার লাভ করেন বাংলাদেশ তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক।
এ বছর এশিয়া-ওশেনিয়া অঞ্চলের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের সংগঠনগুলোর সংস্থা অ্যাসোসিওর দেওয়া দুটি পুরস্কারের আসে বাংলাদেশে। সরকারের তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগ পায় অ্যাসোসিও ডিজিটাল সরকার পুরস্কার ও আউটস্ট্যান্ডিং আইসিটি কোম্পানি হিসেবে বাংলাদেশের স্মার্ট টেকনোলজিস (বিডি) লিমিটেড পুরস্কার।
পিছনে ফিরে তাকালে দেশের সবচেয়ে আলোচিত ঘটনা ছিল জঙ্গি হামলায় রক্তাক্ত গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারি। এ ঘটনায় বিদেশী ২০ জন নগরীকসহ দুই পুলিশ কর্মকর্তা নিহতের ঘটনায় বিশ্ব জুড়ে ছিল আলোচিত। এর রেশ কাটতেনা কাটতে কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ার ঈদের জামায়াতে জঙ্গি হামলায় দুই পুলিশ সদস্যসহ চারজন নিহত হয়। তবে এসব ঘটনার পর আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ধারাবিহক অভিযানে জেএমবির শীর্ষ নেতা তামিম চৌধুরীসহ অন্তত ৪৫ জঙ্গি নিহত হয়। এতে জনগনের মনে স্বস্তি ফিরে আসে।
সারা বছর শিশু নির্যাতন ও হত্যার ঘটনা সবচেয়ে বেশি আলোচনায় ছিল। নারী-শিশুর হত্যা-নির্যাতনের চিত্র দেখে দেশবাসী হতবাক হয়। ঝিনাইদহের শৈলকুপার কবিরপুর গ্রামের ভায়ের সাথে টাকা নিয়ে বিরোধের তিন শিশু শিবলু, আমিন ও মাহিমকে পুড়িয়ে হত্যা করা হয়। জমি নিয়ে বিরোধে নারায়নগঞ্জে একই পরিবারের ৫ জনকে গলা কেটে হত্যা করা হয়। রাজশাহী বিশ্ব বিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের সহকারি অধ্যপক এএফএম রেজাউল করিম সিদ্দিকীকে কুপিয়ে হত্যা করে দুবৃত্তরা। ঢাকার কলাবাগানে সমকামী অধিকার কর্মী জুলহাস মান্নানকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রী তনু হত্যা। ঝিনাইদহে এক পুরোহিতকে কুপিয়ে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। স্কুলে ছেলেকে দিতে যেতে চট্টগ্রামের নিহত হন পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা আক্তার মিতু। যশোরে সহকর্মীর হাতে নিহত হন এক চীনা নাগরিক। নতুন এ বছর যেন অপঘাতে আর কোন মানুষের মৃত্যু না হয় সে কাম্য দেশবাসীর।
আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বেশ কয়েকটি বিজয় ছিনিয়ে এনেছে আমাদের ক্রিকেটাররা। সিরিজ জয় করে ক্রীড়া ক্ষেত্রে বিশ্ব দরবারে আমাদের মাথা উচু করে দিয়েছে । নতুন নতুন রেকর্ড অর্জন করেছে আমাদের ক্রিকেটারা। আন্তজাতিক অংঙ্গনে খেলাধুলায় পিছিয়ে নেই আমাদের মেয়েরা। দক্ষিন এশিয়া গেমসে সাতারে যশোরের মেয়ে মাহফুজার দুইটি স্বর্ণপদক জয় আমাদের দেশের সুনাম শিখরে তুলে দিয়েছে। এ বছর ক্রীড়া অংঙ্গনে এ ধারা অব্যহত থাকুক আশাবাদ দেশবাসীর।
২০১৩ সালের জানুয়ারি মাস থেকে স্বাধীনতার ৪২ বছর পর যুদ্ধাপরাধের কালিমা মোচনের ধারা শুরু হয়ে আজও অব্যহত আছে। যুদ্ধাপরধের দায়ে প্রথম ফাঁসির আদেশ হয় পলাতক বাচ্চু রাজাকারের। যুদ্ধাপরাধীর রায় কার্যকরের মাধ্যমে দেশের কলঙ্ক মোচনের ধারা সূচিত হয়। এ ধারা আজও অব্যহত আছে। এপর্যন্ত ট্রাইব্যুনাল থেকে ২৩টি রায় হয়েছে। যার মধ্যে এ বছর হয়েছে ২টি রায়। ট্রাইব্যুনাল যশোরের মাওলানা সাখাওয়াতের মৃত্যুদন্ড ও ৭জনের আমৃত্যুদন্ড দেয়। এরমধ্যে যুদ্ধাপরাধীর বিচারের রায় চুড়ান্ত নিস্পত্তি হওয়ার পর কর্যকর হয়েছে ২টি। এপ্রিলে আদালতের আদেশে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে রায় কর্যকর করা হয়েছে জামায়াতে ইসলামীর আমীর মাওলানা মতিউর রহমান নিজামী ও বদর নেতা মীর কাশেম আলীর। এছাড়া আরও কয়েকটি মামলা ট্রাইব্যুনালে বিচারের পর্যায়ে ও তদন্তাধীন আছে। এসব রায়ের বিপক্ষে সারাদেশে হরতার ডেকেছে তাদের সমর্থকরা। দেশবাসী নতুন এ বছর আর কোন হরতাল অবরোধ দেখতে চায়না রাজনৈতিক দলগুলোর কাছ থেকে।
২০১৬ সালে আমাদের মাঝ থেকে চির বিদায় নিয়েছেন অনেক মনীষী। গোটা জাতিকে শোক সাগরে ভাসিয়ে যশোরের মাটি ও মাঠের মানুষ আইয়ুব হোসেন, আওয়ামী লীগ নেতা সাবেক সংসদ আলী রেজা রাজু, বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার বাদী মহিতুর রহমান, বিএনপি নেতা হান্নান শাহ, জাতীয় অধ্যাপক ডাক্তার এআর খান, সব্যসাচী লেখক শামসুল হক, কবি রফিক আজাদসহ আরও কত মনীষী চলে গেছেন না ফেরার দেশে। এসব মনীষীদের রেখে যাওয়া কর্মগুলো আমরা বুকে ধারন করে এগিয়ে যাবো আগামি দিনে।
এত কিছুর পরও নতুন বছরকে স্বাগত জানানোর আনন্দো থেকে বিন্দুমাত্র বিচ্যুত করতে পারেনি কাউকে। জীবনের পরতে পরতে রয়েছে হাঁসি কান্না আর দুঃখ। তাই উৎসবের সময় কেন উচ্ছ্বাস উদ্দীপনা নয়। সেই উচ্ছ্বাস উদ্দীপনা থেকেই কাল সূর্যাস্তের পরপরই অপেক্ষা সকলের। প্রশাসনের কড়াকড়িতে বাজির শব্দ তেমন কানে না পৌঁছালেও বর্ষ বরণের কমতি ছিল না দেশের বিভিন্ন স্থানে। ঘড়ির কাটা রাত ১২টা ০১ মিনিট ছোঁয়ার সাথে সাথে ইংরেজি নববর্ষ বরণে মেতে উঠেছিল গোটা দেশবাসী।