সকল প্রাণি খামারিকে প্রযুক্তির মাধ্যমে প্রশিক্ষণ দিতে হবে : মৎস্য প্রতিমন্ত্রী

ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি>
‘নিরাপদ প্রাণিজ আমিষের প্রতিশ্রুতি, সুস্থ সবল মেধাবী জাতি’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে শনিবার ডুমুরিয়া প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর আয়োজিত প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ-২০১৭ এর উদ্বোধন করেছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নারায়ন চন্দ্র চন্দ এমপি।
এসময় প্রতিমন্ত্রী বলেন, উপজেলার সকল প্রাণি খামারি যেমন গরু, ছাগল, ভেড়া, হাঁস-মুরগী, টার্কি, কোয়েল খামারিদের তালিকা করে প্রত্যেককে নিরাপদ খাদ্য উৎপাদনে সহযোগিতা করতে হবে। খামারিদেরকে প্রযুক্তির মাধ্যমে প্রশিক্ষণ দিতে হবে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আশেক হাসানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় কৃষির গুরুত্বারোপ করে তিনি বলেন, কৃষিকে বিশ্ব ত্যাগ করতে পারবে না। তেমনি উন্নতি মানে, শহর মনে করলে চলবে না। সবকিছু গ্রাম থেকেই উৎপাদন হয়ে থাকে। সুতরাং কৃষকদের মূল্যয়ন করতে হবে।’
সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান খান আলী মুনসুর। স্বাগত বক্তব্য দেন উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসার ডা. শরিফুল ইসলাম। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন জেলা পরিষদের সদস্য সরদার আবু সালেহ, অভিজিৎ চন্দ ও মোশাররফ হোসেন বাবু, ডুমুরিয়া কলেজ অধ্যক্ষ হোসনেয়ারা খানম, আ.লীগ নেতা শাহনেওয়াজ জোয়াদ্দার, খামারী আব্দুল হালিম ঢালী, দুগ্ধ সমবায় সমিতি উত্তর ডুমুরিয়ার সভাপতি ইউনুচ গাজী, সাংবাদিক জিএম আব্দুস সালাম, লালতীর লাইভ স্টক এরিয়া ম্যানেজার আরিফুর রহমান, উত্তরণের সফল প্রকল্পের প্রোগ্রাম অফিসার ডা. শওকত আলী, নাজমুল বাসার, ব্লু-গোল্ডের মাস্টার ট্রেনার ডা. এমএম আনোয়ার হোসেন প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন গৌতম ফৌজদার। এ লক্ষ্যে প্রাণিসম্পদ চত্বরে ৭টি প্রদর্শনী স্টল বসানো হয়েছে। সেখানে শংকর জাতের বাছুর, মিল্কিং মেশিন, মোজাফ্ফর জাতের গাড়ল ভেড়া, টার্কি মুরগী, লালতীরের ফ্রি কৃত্রিম প্রজনন, উত্তরণের সফল ফ্রেশ মিল্ক কর্ণার ও ব্লু-গোল্ডের উন্নত জাতের নেপিয়ার ঘাস প্রদর্শনী রয়েছে।