ম্যানিলার ক্যাসিনোতে লাশ হল ৩৬ জন

নিউজ ডেস্ক >ফিলিপিন্সের রাজধানী ম্যানিলার এক ক্যাসিনোতে এক বন্দুকধারীর হামলার পর ৩৬ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

স্থানীয় পুলিশের বরাত দিয়ে বিবিসির খবরে বলা হয়, বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে রিসোর্ট ওয়ার্ল্ড ম্যানিলা নামের ওই ক্যাসিনোতে ঢুকে এক বন্দুকধারী প্রথমে সারি বেঁধে রাখা টিভি মনিটরে গুলি চালায়। পরে নিজের গায়ে আগুন ধরিয়ে আত্মঘাতী হয়।

ওই ঘটনায় তাৎক্ষণিকভাবে রিসোর্টের প্রবেশপথগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয় এবং কর্তৃপক্ষ প্রাথমিকভাবে অন্য কারও হতাহত না হওয়ার খবর দেয়। কিন্তু সকালে ক্যাসিনো কমপ্লেক্সের ভেতর থেকে ৩৬ জনের লাশ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে কর্তৃপক্ষ।

বিবিসি জানিয়েছেন, নিহতদের অধিকাংশেরই মৃত্যু হয়েছে ঘণ ধোঁয়ায় দম বন্ধ হয়ে, কারণ ওই বন্দুকধারী ক্যাসিনোর টেবিলগুলোতেও আগুন ধরিয়ে দিয়েছিলেন।

ওই ক্যাসিনো থেকে অর্ধশতাধিক মানুষকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ম্যানিলা পুলিশ বলছে, এটি সন্ত্রাসী হামলা নয়, বরং ডাকাতি চেষ্টা বলেই তারা প্রাথমিকভাবে মনে করছে। তবে হামলাকারীর নাম জানায় যায়নি।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, ওই ব্যক্তি ক্যাসিনোতে ঢুকে অ্যাসল্ট রাইফেল দিয়ে টিভি মনিটরের দিকে গুলি চালাতে শুরু করলে লোকজন আতঙ্কে ছুটোছুটি শুরু করে।

ওই বন্দুকধারী এরপর ক্যাসিনোর টেবিলে আগুন ধরিয়ে দেয় এবং জুয়ায় ব্যবহৃত প্রায় ২৩ লাখ ডলার সমমূল্যের চিপস ব্যাগে ভরে নেয়।

ফিলিপিন্সের পুলিশ প্রধান রোনাল্ড দেলা রোসা বলছেন, বন্দুকধারী পরে চিপস ভর্তি ব্যাগ রেখেই ক্যাসিনো ছেড়ে বেরিয়ে যায় এবং ওই রিসোর্টের একটি কক্ষে ঢোকে। সেখানে সে বিছানায় শুয়ে নিজেকে পেট্রোলে ভেজানো কম্বলে জড়িয়ে নেয় এবং আগুন ধরিয়ে দেয়।

আগুন ধরানোর পাশাপাশি ওই ব্যক্তি নিজের শরীরে গুলিও চালায় বলে রিসর্ট কর্তৃপক্ষ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে।

গুলির ঘটনার পরপরই পুরো এলাকা নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে ফেলে হামলাকারীর খোঁজে তল্লাশি শুরু করে পুলিশ। তার লাশ পাওয়ার পর অভিযানের সমাপ্তি ঘটে।