যশোরের মুড়লী খাঁ পাড়ার স্বামী পরিত্যক্তাকে উচ্ছেদে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক>
যশোর সদর উপজেলার মুড়লী খাঁ পাড়ার স্বামী পরিত্যক্তা সেলিনা বেগম সন্ত্রাসী জাহিদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছেন। পৈত্রিক ভিটা বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করতে নানা ষড়যন্ত্র করছে সে। বাড়িতে ভাড়াটিয়া আসলে জাহিদ তাদের ভয়ভীতি দিয়ে তাড়িয়ে দিয়ে থাকে। বেশ কয়েবার তাকে মারপিটও করেছে জাহিদ। বৃহস্পতিবার প্রেসক্লাব যশোরে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন সেলিনা বেগেম।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, স্বামী পরিত্যক্তা হয়ে তিনটি সন্তান নিয়ে মুড়লী খাঁ-পাড়া পৈত্রিক ভিটায় বসবাস করছেন। রামনগর খাঁপাড়ার জাহিদ একজন চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও পর সম্পদ লোভী। আমার পৈত্রিক ভিটা দখলের জন্য জাহিদ দীর্ঘদিন ধরে ষড়যন্ত্র করে আসছিল।
তিনি বলেন, বসত ভিটা দখলে বাধা দেয়ায় জাহিদ তার বাড়িতে ভাড়াটিয়া থাকতে দেয়না। কয়েকবার জাহিদ জমি দখল নিতে আসে। এ সময় বাধা দেয়ায় জাহিদ তাকে মারপিট করেছে। গত ৬ জুন বিকেলে গাছ থেকে নারিকেল পাড়ার সময় জাহিদ এসে বাধা দেয় এবং তাকে মারপিট করে। এসময় জাহিদ তার গলার স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নেয়। স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে জাহিদ চলে যায়। স্থানীয়ভাবে মীমাংসার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে থানায় অভিযোগ দেয়া হয়েছে। পুলিশ এ ব্যাপারে কোন ব্যবস্থা গ্রহন করেনি। ফলে জাহিদ এখন আরও বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। বর্তমানে তিনি তার তিন সন্তান নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় দিন কাটাচ্ছেন। এ ব্যাপারে তিনি প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কমনা করেছেন।