চুড়ামনকাটিতে আয়োডিনবিহীন লবণ ও মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য রাখায় জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক>
যশোর সদর উপজেলার চুড়ামনকাটি বাজারের বেকারি, মুদি দোকান ও মোটরযান আইনে অভিযান চালিয়ে সাড়ে ১০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। আয়োডিন বিহীন লবন ও মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য দোকানে রাখার অপরাধে মামলা দিয়ে এ জরিমানা আদায় করা হয়। মেয়াদ উর্ত্তীণ পণ্য জব্দের পর ধ্বংস করা হয়েছে । মঙ্গলবার পরিচালিত এ ভ্রাম্যমাণ আদালতের নেতৃত্ব দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আনিসুর রহমান ও সাদিয়া আফরিন।
আদালতের পেশকার শেখ জালাল উদ্দীন জানান, দুপুরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আনিসুর রহমানের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত চুড়ামনকাটি বাজারের দাউদ স্টোর নামে একটি বেকারিতে অভিযান চালায়। এ বেকারির সকল খাদ্যপণ্য মেয়াদোত্তীর্ণ পাওয়া যায়। এ ব্যাপারে মালিক আবু দাউদের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে ৪ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। একই সাথে মেয়াদ উর্ত্তীণ পণ্য জব্দ করে ধ্বংস করা হয়।
অপরদিকে, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আনিসুর রহমানের নেতৃত্বে পরিচালিত আরেকটি ভ্রাম্যমাণ আদালত চুড়ামনকাটি বাজারের রাশেদুল ইসলামের মুদি দোকানে অভিযান চালান। এ সময় আদালত আয়োডিন বিহীন খোলা লবণ বিক্রির অপরাধে দোকান মালিক রাশেদুল ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে ৪ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।
এ ছাড়া নতুন খয়েরতলায় প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না থাকায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জহির ইমাম একটি বাস এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল্লাহ-আল-মাহফুজ আরেকটি বাসের চালককে মোট ২ হাজার টাকা করে জরিমানা করেন। এছাড়া নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাহিদ তামান্না পালবাড়িতে হেলমেট ব্যবহার না করায় একজন মোটরসাইকেল চালককে ৪শ’ টাকা জরিমানা করেন। অভিযানকালে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।