ছাত্রের দাঁত ভেঙ্গে দিলেন শিক্ষক

চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধি>
যশোরের চৌগাছায় শিক্ষকের বিরুদ্ধে মুত্তাকিন (১০) নামের এক শিশু ছাত্রকে পিটিয়ে জখম করার অভিযোগ করেছেন ছাত্রটির পিতা। মুত্তাকিন উপজেলার জামিরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্র এবং একই গ্রামের আব্দুল কাদিরের ছেলে। আহত শিক্ষার্থী ও তার পরিবার জানিয়েছেন বন্ধুদের সাথে খেলা করার অভিযোগে বিদ্যালয়ের অতিরিক্ত শিক্ষক আমির সোহেল ডাস্টার দিয়ে এলোপাতাড়ি পিটাতে থাকেন। এসময় তার মুখে আঘাত লাগলে সামনের দুটি দাঁতে মারাত্মক আঘাত প্রাপ্ত হয়। বিদ্যালয়ে বিরতির (টিফিনের) সময় মুত্তাকিন বাড়িতে ভাত খেতে গিয়ে উঠানে অচেতন পড়ে যায়। এসময় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসক দেখেন তার সামনের দুটি দাঁতে মারাত্মক আঘাত প্রাপ্ত। কীভাবে এমন হয়েছে জানতে চাইলে আহত মুত্তাকিন ঘটনার বর্ণনা দেয়। শিক্ষক আমির সোহেল ডিভাইন গ্রুপের নিয়োগকৃত শিক্ষক। এব্যাপারে জানতে চাইলে শিক্ষক আমির সোহেল বলেন, অসাবধানতাবশত ছেলেটি আঘাত পেয়েছে। আমি শুনেছি তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আমি তাকে হাসপাতালে দেখতে যাব। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার বেলায়েত হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন এব্যাপারে আমাকে কেউ জানায়নি।