যশোর বকচরে মাদ্রাসা কক্ষে অবৈধ ইলেকট্রিক কারখানা সিলগালা, জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক>যশোর শহরের বকচরে মাদ্রাসা কক্ষে অবৈধ জামিয়া কুরআনিয়া ইলেকট্রিক প্রোডাক্টস কারখানার মালিক ও মাদ্রাসা ম্যানেজিং কমিটির সম্পাদককে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা এবং কারখানা সিলগালা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। কোন প্রকার কাগজপত্র ছাড়াই কারখানা পরিচালনা ও মাদ্রাসার রুম ভাড়া দেয়ার অভিযোগে মামলা দিয়ে এ জরিমানা আদায় করা হয়। এ ছাড়া অপর একটি ভ্রাম্যমাণ আদালত রাজারহাটের বনফুল বেকারির কারখানায় অভিযান চালিয়ে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন। কারখানা পরিচালনার অনুমোদন না থাকায় ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশের অভিযোগে মামলা দিয়ে এক জরিমানা আদায় করা হয়।
বুধবার পরিচালিত এ ভ্রাম্যমাণ আদালতের নেতৃত্ব দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আনিসুর রহমান ও আব্দুল্লাহ আল মাহাফুজ।
আদালত সূত্রে জানা গেছে, দুপুরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আনিসুর রহমানের নেতৃত্বে বকচরের জামিয়া কুরআনিয়া মাদ্রাসায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় মাদ্রাসার দুইটি কক্ষ ভাড়া নিয়ে অনুমোদন ছাড়াই গোপনে জামিয়া কুরআনিয়া প্রোডাক্টসের কারখানায় আরবিআই ব্রান্ডের ইলেক্টনিকস পণ্য সুইচ, হোল্ডার, সকেট, টু-পিন, থ্রি-পিন ও প্লাগ তৈরি করে বাজারজাত করা হচ্ছিল। পরিবেশ, ফায়ার সার্ভিস ও কারখানা পরিদর্শন অধিদফতরের ছাড়পত্র না থাকায় মালিক মনিরুল ইসলামের নামে মামলা দিয়ে ৫০ হাজার টাকা ও মাদ্রাসার ক্লাসরুম ভাড়া দেয়ার অভিযোগে ম্যানেজিং কমিটির সম্পাদক আব্দুস শহীদের নামে মামলা দিয়ে ১০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। এসময় কারখানাটি সিলগালা করে দেয়া হয়েছে।
অপরদিকে, দুপুরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল মাহাফুজের নেতৃত্বে একটি ভ্রাম্যমাণ আদালত রাজারহাটের বনফুল বেকারির কারখানায় অভিযান চালানো হয়। এসময় নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার তৈরি ও কারখানা পরিচালনার অনুমোদন না থাকায় কারখানা কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে ২০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন পেশকার শেখ জালাল উদ্দীন ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর সদস্য।