ঝিকরগাছায় সন্ত্রাসীদের হামলায় যুবলীগ কর্মী আহত

নিজস্ব প্রতিনিধি >
যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলা যুবলীগ কর্মী মুন্না সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত হয়েছে। গতকাল সকাল সাড়ে ১১টার সময় পৌরসদরের কৃষ্ণনগরস্থ সাবেক মন্ত্রী মোস্তফা ফারুক মোহাম্মদের বাড়ির সামনে ঘটনাটি ঘটেছে।
লক্ষীপুর গ্রামের বাবলুর রহমানের ছেলে আহত মুন্না জানিয়েছেন, তিনি বাড়ি থেকে তার শশুর বাড়ি যাওয়ার পথে কৃষ্ণনগরস্থ সাবেক মন্ত্রী মোস্তফা ফারুক মোহাম্মদের বাড়ির সামনে আসলেই আগে থেকে ওৎপেতে থাকা একাধিক মামলার আসামি কৃষ্ণনগর গ্রামের রবিউল সরদারের ছেলে রাজু সরদার, আসলাম মাস্টারের ছেলে জাহিদ হাসান টোকন, মৃত নাজিম গাজীর ছেলে ইয়াবা ব্যবসায়ী শিপন গাজী, বকুলের ছেলে সোহান, বোটঘাট রোডের কফিল উদ্দীনের ছেলে আরিফ, হাসপাতাল রোডস্থ কৃর্ত্তিপুর গ্রামের কাঞ্চলের ছেলে বালি বাবু, শ্রীরামপুর গ্রামের গফুরের ছেলে সাজু, যশোরের কাজীপাড়ার শরিফুর ইসলামের ছেলে ইয়াবা ব্যবসায়ী প্রান্ত, চোর লিখনসহ আরো কয়েকজন সন্ত্রাসী পিস্তল, লোহার রড়, হাতুড়ি ও চাকু দিয়ে তাকে ও তার স্ত্রীকে অহেতুক মারপিট করে। আহত মুন্নার চিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে আসলে উল্লেখিত সন্ত্রাসীরা ঘটনাস্থল ছেড়ে পালিয়ে যায় এবং আহত মুন্নাকে এলাকাবাসীর সহযোগিতায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
আহত মুন্নাকে দেখতে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুছা মাহমুদ। এসময় থানার সেকেন্ড অফিসার শরিফুল ইসলাম, এসআই মনির হোসেন, এসআই আমির হোসেন হাসপাতালে গিয়ে আহত মুন্নার কথা শুনেন এবং ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ আবু সালেহ মাসুদ করিম বলেন, ঘটনার বিষয়ে আমি শুনেছি এবং আহতের পক্ষ থেকে অভিযোগ করলে আমি দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।