ভৈরব নদে বর্জ্য : যশোরে প্লাস্টিক কারখানায় জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক>
ভৈরব নদে বর্জ্য ফেলানোর অপরাধে ভ্রাম্যমাণ আদালত যশোর শহরতলীর শেখহাটিতে প্লাস্টিক কারখানায় জরিমানা করেছেন। অভিযানে একটি খাবারের দোকান ও মোটরযান আইনে ৫টি বাস-ট্রাকের চালককে জরিমানা করা হয়। সোমবার পরিচালিত এ আদালতের নেতৃত্ব দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আনিসুর রহমান, আনোয়ার-উজ-জামান, সৈয়দ জাকির হাসান, নাহিদ তামান্না ও জহির ইমাম।
আদালত সূত্রে জানা গেছে, বিকেলে ভ্রাম্যমাণ আদালত শহরতলীর শেখহাটি দক্ষিণপাড়া এলাকার রিনা প্লাস্টিক কারখানায় অভিযান চালায়। এ সময় পরিবেশ অধিদফতরের কাগজপত্র না থাকায় ও বর্জ্য ভৈরব নদে অপসারণ করার অপরাধে মালিক মুকুল হোসেনের নামে মামলা দিয়ে ১০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। অভিযানকালে পরিবেশ অধিদফতরের জেলা কার্যালয়ের সহকারী বায়োকেমিস্ট নিখিল চন্দ্র ঢালি উপস্থিত ছিলেন।
শহরের আর এন রোড এলাকার কনিকা হোটেলে অভিযান চালান অপর একটি ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানকালে আদালত হোটেলে নোংরা পরিবেশে খাবার তৈরি ও বিক্রির অভিযোগে হোটেল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে ৬ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।
এ ছাড়া রাজারহাটে আলাদা ভ্রাম্যমাণ আদালত চেকপোস্ট বসিয়ে বিভিন্ন যানবাহনের কাগজপত্র পরীক্ষা করে। এ সময় প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না থাকায় ৪টি বাস ও একটি ট্রাকের চালকের নামে মামলা দিয়ে মোট ৪ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এ সব অভিযানে পেশকার শেখ জালাল উদ্দীন ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।