যশোরে গোলটেবিল আলোচনা> পুলিশ সদস্যরা অপরাধ করলেই ব্যবস্থা : পুলিশ সুপার

নিজস্ব প্রতিবেদক>
যশোরের পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান বলেছেন, আইন সবার জন্য সমান। সাধারণ মানুষের জন্য যে আইন, পুলিশের জন্যও একই আইন। তাই পুলিশ সদস্যরা কোনো ধরণের অপরাধ কর্মকান্ডে জড়ালে তার বিরুদ্ধেও যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ইতোপূর্বে যে পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে মাদক দিয়ে আটকের চেষ্টা বা অপরাধমূলক কর্মকান্ডে জড়িত হওয়ার প্রমাণ পাওয়া গেছে তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।
বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক গোলটেবিল আলোচনা সভায় পুলিশ সুপার এসব কথা বলেন। ‘মাদক ও জঙ্গিবাদ নির্মূলে পত্রিকার সম্পাদক ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে’ এ গোলটেবিল আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।
আলোচনার শুরুতেই যশোর পুলিশের একশ’ দিনের মাদকবিরোধী অভিযানের সাফল্যের খতিয়ান তুলে ধরা হয়। পাশাপাশি জঙ্গিবাদ ও মাদক নির্মূলে চলমান পরবর্তী ১০১ দিনের কর্মসূচির বিষয়টিও আলোচনা করা হয়।
অনুষ্ঠানে পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান আরও জানান, জঙ্গিবাদ ও মাদক নির্মূল এবং আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভাল রাখতে পুলিশ নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। যশোরে ছিনতাই, চাঁদাবাজি, সন্ত্রাসী তৎপরতা ও অপরাধ কর্মকান্ড এখন নেই বললেই চলে। মাদক নির্মূলে অব্যাহতভাবে অভিযান চলছে। জেলার শীর্ষ চার মাদক ব্যবসায়ী ‘নিজেদের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছে। ৮২৬ জন মাদক ব্যবসায়ী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মাধ্যমে আত্মসমর্পণ করেছে। এছাড়াও শীর্ষ কিছু মাদক ব্যবসায়ীকে ধরিয়ে দেয়ার জন্য পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে। জঙ্গিদের ক্ষেত্রেও একই ধরণের তৎপরতা রয়েছে।
গোলটেবিল বৈঠকে আমন্ত্রিতদের মধ্যে বক্তব্য দেন, প্রেসক্লাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন, সাবেক সভাপতি মিজানুর রহমান তোতা, যশোর জেলা বাস মালিক সমিতির সভাপতি আলী আকবর, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার রাজেক আহমেদ, ইন্টারডিস্ট্রিক্ট বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও ঈগল পরিবহনের সত্ত্বাধিকারী পবিত্র কাপুড়িয়া, গ্রামের কাগজ সম্পাদক মবিনুল ইসলাম মবিন, দৈনিক সত্যপাঠ সম্পাদক হারুন অর রশিদ, যশোর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অসীম কুন্ডু, সাধারণ সম্পাদক দীপঙ্কর দাস রতন, জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক পৌর কাউন্সিলর সন্তোষ দত্ত, কুইন্স হসপিটালের পরিচালক ও ব্যবসায়ী নেতা হুমায়ুন কবির কবু, দৈনিক স্পন্দন’র নির্বাহী সম্পাদক মাহবুব আলম লাবলু, দৈনিক নওয়াপাড়া সম্পাদক আসলাম হোসেন প্রমুখ।
পুলিশ কর্মকর্তাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সালাউদ্দিন শিকদার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) আনসার উদ্দিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক সার্কেল) নাইমুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (খ সার্কেল) গোলাম রব্বানী, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার জামাল আল নাসের, কোতয়ালি থানার ওসি কেএম আজমল হুদা প্রমুখ।