যশোরে প্রাইভেট কার থেকে ফেলে যাওয়া হল যুবকের লাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক>
যশোর শহরের ডিসির বাংলো রোডের সড়ক ও জনপথের নির্বাহী প্রকৌশলীর বাসভবনের সামনে থেকে শুক্রবার সন্ধ্যায় অজ্ঞাত (৩২) এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। একটি প্রাইভেট কার থেকে মরদেহটি ফেলে রেখে যাওয়া হয়। শুক্রবার সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে কোতয়ালি থানা পুলিশ সংবাদ পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। মরদেহের পরনে নিল রঙের জিন্সের প্যান্ট ও একই রঙের ফুলহাতা জামা রয়েছে। তার মুখ মন্ডল ঝলসে দেয়া হয়েছে।
কোতয়ালি থানার ওসি (ইন্টিলিজেন্ট অ্যান্ড কমিউনিটি পুলিশিং) তোফায়েল আহমেদ জানিয়েছেন, সন্ধ্যা সাতটার দিকে আদ দ্বীন শিশু হাসপাতালের সামনের চায়ের দোকানে গিয়ে এক মোটরসাইকেল চালক লোকজনকে জানান; সওজ এর নির্বাহী প্রকৌশলীর বাসভবনের সামনে একটি লাশ পড়ে আছে। একটি নিল রঙয়ের প্রাইভেটকার থেকে লাশটি সেখানে ফেলে যাওয়া হয়। এবং প্রাইভেটকারটি দ্রুত ওই হাসপাতালের সামনে দিয়ে চলে যায়। পরে লোকজন সেখানে গিয়ে অজ্ঞাত ওই যুবকের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে সংবাদ দেয়।
তিনি আরো জানিয়েছেন, ধারনা করা হচ্ছে বাইরে থেকে হত্যা করে ওই যুবককে ওই স্থানে ফেলে রাখা হয়েছে। মরদেহ দেখে ধারণা করা হচ্ছে অন্তত একদিন আগে হত্যা করা হয়েছে। মুখমন্ডল ও শরীরের চামড়া কালো হয়ে গেছে। মনে হচ্ছে এসিড জাতীয় পদার্থ দিয়ে ঝলসে দেয়া হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
ওই এলাকার ইকবাল আহমেদ সিদ্দিকী নামে এক ব্যক্তি জানিয়েছেন, ওই স্থানটি সন্ধ্যার পর প্রায় জনশূণ্য থাকে। অনেক দুর্বৃত্ত সেখানে অড্ডা দেয়। বছর খানেক আগেও একই স্থানে এক নারীর মরদেহ পাওয়া গিয়েছিল। বাইরে হত্যা করে ওই স্থানে লাশ ফেলে রেখে দুর্বৃত্তরা পালিয়েছে বলে তিনি জানান।