বর্ণাঢ্য গণসংবর্ধনায় কেউ আসেন হাতির পিঠে কেউ ঘোড়ার গাড়িতে

বিল্লাল হোসেন>
জননন্দিত নেতা যশোর-১ (শার্শা) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিনের গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠান উপলক্ষে গতকাল শনিবার ছিল সাজসাজ রব। অতিথিরা আসার আগেই অনুষ্ঠানস্থল পরিণত হয় জনসমুদ্রে। কেউ হাতির পিঠে, কেউ ঘোড়ার পিঠে আবার কেউ ঘোড়ার গাড়িতে চড়ে আসেন অনুষ্ঠানের মাঠে। এছাড়া আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, কৃষকলীগ, মহিলালীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বাদ্যবাজনার সাথে বর্ণাঢ্যরূপে গণসংবর্ধনায় অংশগ্রহণ করেন। উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানরা ছিলেন এক পোশাকে। সাদা পাঞ্জাবি, পায়জামা ও কালোকোর্ট পরে বসেছিলেন গণসংবর্ধনা মঞ্চে। হাজার হাজার নারী-পুরুষ তাদের প্রিয় জনপ্রতিনিধির প্রতি বুকভরা ভালোবাসা উজাড় করে একত্রিত কণ্ঠে বলতে থাকে ‘আফিল ভাই তুমি এগিয়ে চলো আমরা আছি তোমার সাথে’।
বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পদকে ভূষিত হওয়ায় শেখ আফিল উদ্দিন এমপিকে শনিবার গণসংবর্ধনার আয়োজন করে শার্শা উপজেলা আওয়ামী লীগ। সংবর্ধনাকে ঘিরে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনগুলো ছাড়াও সাধারণ মানুষের মাঝে আগে থেকেই সৃষ্টি হয়েছিল ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার। উপজেলাজুড়ে তোরণ, ব্যানার, বিলবোর্ড স্থাপন ছাড়াও নানা সজ্জায় সজ্জিত করা হয়। গতকাল বিকেল ৩টার পরে এ অনুষ্ঠান শুরু হওয়ার সময় নির্ধারণ করা থাকলেও হাজার হাজার নারী পুরুষ জনপ্রিয় এমপি আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিনকে সম্মান জানানোর উদ্দেশ্যে দুপুর দেড়টার পর থেকে অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করতে থাকে বর্ণাঢ্যভাবে। শার্শা উপজেলার উলাশী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলহাজ আইনাল হক হাতির পিঠে, বেনাপোল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলহাজ বজলুর রহমান ঘোড়ার পিঠে, বাগআঁচড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইলিয়াছ কবির বকুল ও বাহাদুরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান আসেন ঘোড়ার গাড়ি চড়ে। সংবর্ধনায় অংশ নেয়া অতিথিবৃন্দ ও সাধারণ মানুষকে আনন্দ দিতেই তারা এমন সাজে অনুষ্ঠানে আসেন। উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, বাস্তুহারালীগ, মহিলালীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা আলাদা আলাদা মিছিল নিয়ে বর্ণাঢ্যভাবে গণসংবর্ধনায় এসে উপস্থিত হন। তাদের সাথে অনুষ্ঠানে সাধারণ মানুষের অংশগ্রহণ। সাজসাজ রবের সৃষ্টি হয়। সেইসাথে ছিল উৎসব আমেজ। বাদ্যবাজনা ও আতশবাজির শব্দে মুখরিত হয়ে ওঠে গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠান। সাজসজ্জা দেখে আগত অতিথিরা সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন। গণসংবর্ধনায় অংশগ্রহণ করে হাজার হাজার নারী-পুরুষ প্রমাণ করে দিয়েছেন আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিন এমপি মাটি ও মানুষের নন্দিত জননেতা। তিনিই তাদের কাছে একজন প্রিয় ও যোগ্য ব্যক্তি। তাইতো নেতার প্রতি ভালোবাসার টানে দলমত নির্বিশেষে মানুষ গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ছুটে আসেন। মিছিলে মিছিলে মুখরিত করে তোলা অনুষ্ঠানস্থল।