যশোর এমএম কলেজে ছাত্রকে মারপিটের প্রতিবাদে প্রথম আলো বন্ধুসভার মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক>
যশোর সরকারি মাইকেল মধুসূদন (এমএম) কলেজে প্রথম আলো যশোর বন্ধুসভার সাধারণ সম্পাদক মুরাদ হোসেনকে মারধরের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ, মিছিল ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে যশোর বন্ধুসভার উদ্যোগে শহরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সড়কে প্রেসক্লাবের সামনে এ কর্মসূচি পালিত হয়।
কর্মসূচি থেকে হামলাকারী সন্ত্রাসীদের ৭২ ঘন্টার মধ্যে আটক করার জন্যে পুলিশ প্রশাসনের প্রতি সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছে। এ সময়ের মধ্যে সন্ত্রাসীদের আটক না করলে বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। পরে এ দাবিতে জেলা প্রশাসক মো. আশরাফ উদ্দীন ও পুলিশ সুপার আনিসুর রহমানের কাছে স্মারকলিপি দেওয়া হয়েছে।
বেলা ১১টায় মাননবন্ধন শুরু হয়। মানববন্ধনে এমএম কলেজের ছাত্রছাত্রী, সাংস্কৃতিক সংগঠন ও সামাজিক সংগঠনের নেতা-কর্মীরা অংশ নেন।
এ সময় বক্তব্য রাখেন সুরধুনী সংগীত নিকেতনের সভাপতি হারুন-অর-রশীদ, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ যশোর সদর উপজেলা কমান্ডের ডেপুটি কমান্ডার আফজাল হোসেন, প্রথম আলোর জেলা প্রতিনিধি মনিরুল ইসলাম, বন্ধুসভার সহ-সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন, সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রট জেলা শাখার সভাপতি উজ্জ্বল বিশ্বাস ও বন্ধুসভার বন্ধু মুসলিমা খাতুন। এছাড়া বক্তব্য দেন এমএম কলেজে সন্ত্রাসীদের দ্বারা নির্যাতনের শিকার আনন্দ কুমার সরকার ও আবু হুরায়রা ইফতি।
পরে মিছিল নিয়ে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে গিয়ে স্মারক লিপি দেওয়া হয়। এ সময় জেলা প্রশাসক আশরাফ উদ্দীন বলেন, এমএম কলেজ ক্যাম্পাসে সাধারণ শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হবে।
প্রসঙ্গত, গত সোমবার দুপুরে কলেজে ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের পরিচয়ে কয়েকজন দুর্বৃত্ত মুরাদ হোসেনকে বেদম মারপিট করে। মুরাদকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়া হয়।
মুরাদ এমএম কলেজের ইংরেজি তৃতীয় বিভাগের ছাত্র। তার বাড়ি যশোরের শার্শা উপজেলার জামতালা গ্রামে। খড়কি এলাকার ছাত্রাবাসে থেকে তিনি লেখাপড়া করেন।